0 votes
31 views
in Business by
আসসালামুআলাইকুম।    আমি কানিজ ফাতিমা । আমার একটি ইউটিউব চ্যানেল আছে।  আমি ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করতে চাই । আমার প্রশ্নগুলো  হচ্ছে,  
১. আমি যদি আমার কন্ঠ কোন সফটওয়্যার দিয়ে সম্পূর্ণ ছেলেদের মতো করে দিই তাহলে কি কোন গোনাহ হবে?

২. কার্টুন দেখা বা বানানো কি জায়েজ আছে?
৩. ভিডিও তে যে ব্যাকগ্রাউন্ড মিইজিক দেয় তা কি দেয়া বা শোনা জায়েজ?
৪. কোন প্রয়োজনেে যদি আমি  গায়রে মাহরাম কারো সাথে কথা বলি তাহলে কি গোনাহ হবে ?

৫. ছবি এবং ভিডিও সংক্রান্ত সকল মাসায়েল যদি জানান খুবই উপকৃত।
আমি অনেকদিন যাবত মাসালা গুলো জানতে চাচ্ছি তাই দয়া করে একটু তাড়াতাড়ি জানাবেন।
ago by (6 points)
আসসালামুয়ালাইকুম । ইউটিউব  থেকে ইনকাম করা হারাম। এর জন্য আপনি এই ভিডিও টি দেখতে পারেন। আমিও একজন ইউটিউব  ছিলাম হারাম দেখে ছেড়ে দিয়েছি। আল্লাহ্ আপনাকে কবুল করুক

https://www.youtube.com/watch?v=ppKCVwaVXXg

1 Answer

0 votes
ago by (2.5k points)

বিসমিহি তা'আলা

জবাবঃ-

(১)

ধোকা দেয়ার জন্য নয় বরং পুরুষের অন্তরকে নারীর চিন্তা থেকে বিরত রাখার খেয়ালে যদি হয় তাহলে করতে পারেন।

তবে ইহা দ্বারা কখনো ধোকাবজীর নিয়ত করা জায়েয হবে না।

(২)

দুয়েকজন জায়েযের পক্ষে থাকলেও অধিকাংশ ফুকাহায়ে কিরাম নাজায়েয বলেছেন।

(৩)

মিউজিক সর্বাবস্থায় হারাম ও নাজায়েয।

অন্যকিছু দিতে পারেন।যেমন সাগর বা বহমান পানির কলতান, পাখির কিচিরমিচির, ইত্যাদি।

(৪)

বিশেষ ও বাস্তব প্রয়োজন হলে আওয়াজকে রুক্ষ রেখে পর্দার আড়াল থেকে গায়রে মাহরাম পুরুষের সাথে প্রয়োজন পর্যন্ত আলাপ করতে পারেন।যদি কোনো মাহরাম পুরুষ থাকেন তবে তার মাধ্যমেই আলাপ করাতে হবে।

(৫) আপনি যেটা জানতে চাইবেন,সেটা আমাদের এখানে প্রশ্ন আকারে পাঠিয়ে দিবেন। জাযাকিল্লাহ।

আল্লাহ-ই ভালো জানেন।

উত্তর লিখনে

মুফতী ইমদাদুল হক

ইফতা বিভাগ, IOM.

পরিচালক

ইসলামিক রিচার্স কাউন্সিল বাংলাদেশ

Welcome to Islamic Fatwa, a siser concern of Islamic Online Madrasah(IOM), where you can ask any Islamic questions and receive answers from dedicated scholars.
...