0 votes
12 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (13 points)
কোন একজন মবনুষ তার বাড়ি থেকে কতটুকু দূঢ়ত্ব অতিক্রম করলে মুসাফির হিসেবে গণ্য হবে? আগামী বুধবার আমি নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলা আমার বাড়ি হতে ঢাকার দোহার উপজেলায় যাচ্ছি। আমি সেখানে একদিন পুরোপুরি থাকব না। সকালের দিকে রওয়ানা দিব এবং ইং শা আল্লহ বিকাল/সন্ধ্যায় রওয়ানা দিব। আমি google map এ যা দেখলাম তাতে মোটামুটি বুঝলাম দোহার উপজেলা আমার বাড়ি হতে ৪১ কিলোমিটার এর আশেপাশে এরকম দূঢ়ত্ব হবে (পুরোপুরি সঠিক জায়গাটা চিনিনা)। এখন এমতাবস্থায় আমি কী মুসাফির হিসেবে গণ্য হব? আমাকে কয় রাকাত স্বলাত আদায় করতে হবে? আমি সম্ভবত সেখানে যুহর ও আসরের সময় সেখানে অবস্থান করব ইং শা আল্লহ। আমাকে কয় ওয়াক্ত স্বলাত আদায় করতে হবে?

1 Answer

+1 vote
by (60,680 points)
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
তিন দিন বা তার সমপরিমাণ দূরত্বের অধিক সফর করলে কেউ মুসাফির হিসাবে গণ্য হবে।যেমন ফাতাওয়ায়ে হিন্দিয়ায় বর্ণিত রয়েছে-
أَقَلُّ مَسَافَةٍ تَتَغَيَّرُ فِيهَا الْأَحْكَامُ مَسِيرَةُ ثَلَاثَةِ أَيَّامٍ، كَذَا فِي التَّبْيِينِ، هُوَ الصَّحِيحُ
সর্বনিম্ন দূরত্ব যার দ্বারা শরীয়তের বিধি-বিধানে  পরিবর্তন আসে।(তথা মানুষ মুসাফির হয়)তিন দিনের দূরত্ব।(তাবয়ীন) এটাই বিশুদ্ধ মত।(ফাতাওয়ায়ে হিন্দিয়া-১/১৩৮)বিস্তারিত জানুন- 1281

তিনদিনের দূরত্বকে ফুকাহায়ে কেরাম ৭৭কিলো সমপরিমাণ নির্ধারণ করেন।তাই বর্তমানে কেউ ৭৭কিলো সমপরিমাণ সফর করলে সে শরয়ী মুসাফির হিসেবে গণ্য হবে।

সুপ্রিয় পাঠকবর্গ ও প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!
আপনার বর্ণিত তথ্য অনুযায়ী আপনি মুসাফির হবে না।সুতরাং আপনাকে পূর্ণ নামাযই পড়তে হবে।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...