0 votes
10 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (6 points)
১. রাতে ঘুমানোর সময় হেডফোনে কোরআন শুনতে শুনতে ঘুমিয়ে গেলে এবং কোরআন চলতে থাকলে কি গুনাহ হবে? হলে কি করণীয়?
২. আমি রাস্তায় হাটার সময় বেশিরভাগ সময় হেডফোনে কোরআনের বাংলা তরজমা শুনি। মনোযোগ  পুরোপুরি ধরে রাখার চেষ্টা করি তাও অনেক ক্ষেত্রে বিঘ্ন ঘটে। কোনো ভুলত্রুটি হচ্ছে কি?
৩. আরবিতে কোরআন শোনার চেয়ে আমার বাংলা তরজমা শুনতে বেশি ভালো লাগে। কারণ, আমি অর্থের গভীরে যেতে চাই। আমি কি ভুল করছি। কি করণীয়?

1 Answer

0 votes
by (20,400 points)

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।

জবাবঃ

আল্লাহ তাআ’লা বলেন,

وَإِذَا قُرِىءَ الْقُرْآنُ فَاسْتَمِعُواْ لَهُ وَأَنصِتُواْ لَعَلَّكُمْ تُرْحَمُونَ

যখন কোরআন তিলাওয়াত করা হয়, তখন তোমরা তা শোন এবং চুপ থাক, যেন তোমাদের উপর করুণা করা হয়। (সূরা আ’রাফ ২০৪)

 

হাদিস শরিফে এসেছে, আবু হোরায়রা রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ বলেছেন,

مَنْ اسْتَمَعَ إِلَى آيَةٍ مِنْ كِتَابِ اللَّهِ تَعَالَى ، كُتِبَ لَهُ حَسَنَةٌ مُضَاعَفَةٌ ، وَمَنْ تَلَاهَا كَانَتْ لَهُ نُورًا يَوْمَ الْقِيَامَةِ

যে ব্যক্তি কোরআনের একটি আয়াত মনোযোগ দিয়ে শ্রবণ করবে, তার জন্য বহুগুণ বর্ধিত সাওয়াব লিখা হবে। আর যে ব্যক্তি তা তেলাওয়াত করবে, তার জন্য এই আয়াতটি কিয়ামতের দিন নূরে পরিণত হবে। (মুসনাদে আহমদ  ৮৪৯৪)

 

প্রখ্যাত তাবেয়ী খালিদ ইবনু মা’দান (১০৩ হি) বলেন,

إِنَّ الَّذِي يَقْرَأُ الْقُرْآنَ لَهُ أَجْرٌ ، وَإِنَّ الَّذِي يَسْتَمِعُ لَهُ أَجْرَانِ

যে ব্যক্তি কোরআন তেলাওয়াত করেন, তার জন্য রয়েছে একটি পুরস্কার। আর যিনি তা মনোযোগ দিয়ে শ্রবণ করেন, তার জন্য রয়েছে দুটি পুরস্কার। (সুনানুদ দারিমী ২/৫৩৬)

 

বিভিন্ন কাজের ফাঁকে কোরআন তেলাওয়াত শোনা নিষেধ নয় তবে উচিত নয়। কেননা, কাজে ব্যস্ত থাকার সময় কোরআন তেলাওয়াত শোনার ক্ষেত্রে তেলাওয়াতের প্রতি মনোযোগ থাকে না। অথচ যখন কোরআন তেলাওয়াত করা হয় তখন তা মনোযোগসহ শ্রবণ করা আবশ্যক। (ফাতওয়ায়ে শামী-১/৫১০)

 

সু-প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!

 

১. রাতে ঘুমানোর সময় হেডফোনে কোরআন শুনতে শুনতে ঘুমিয়ে গেলে এবং কোরআন চলতে থাকলে গুনাহ হবে না ইনশাআল্লাহ। তবে এটা আদবের খেলাফ। তাই আপনার জন্য করণীয় হলো ঘুম ঘুম ভাবের পূর্বে তেলাওয়াত শোনা বন্ধ করে দেওয়া।

২. আপনি যদি কুরআনের রেকর্ড ছেড়ে তা শুনতে শুনতে অন্য কাজ করেন বা রাস্তায় হাটেন তাহলে তাতে গুনাহ হবে না। তবে এমনটি না করে মনোযোগ সহকারে কুরআন শোনাই উত্তম।

৩. হ্যাঁ, আপনি বাংলা তরজমাসহ কুরআন তেলাওয়াত শুনতে পারেন। এতে কোন সমস্যা নেই।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী আব্দুল ওয়াহিদ
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...