আইফতোয়াতে ওয়াসওয়াসা সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হবে না। ওয়াসওয়াসায় আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা ও করণীয় সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন

0 votes
45 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (9 points)

https://www.alkawsar.com/bn/article/242/

Assalamu alaikum wa rahmatullahi wa barakatuh.

লেখাটা আল্লাহর দয়া। খুব পেরেশানি নিয়েই প্রশ্নগুলো জিজ্ঞেস করা। মেহেরবানী করে বিস্তারিত জানাবেন

বিয়ের আগে ছবি দেওয়া/নন মাহরামের সামনে না যাওয়া এসব নিয়ে আমার মা বাবা দুজনই আমার উপর অসন্তুষ্ট। কথা ও তেমন বলেন না। আমি বুঝতে পারি আমার উপর এমন আচরনের হয়তো কারণ আছে। বিয়ের বয়স হয়েছে, আজকাল ছবি ছাড়া কেউ কথাই আগাতে চায় না। সবাই আমার বিরোধী, কোনো সহযোগী নাই। আমার মা বাবার এমন আচরণ, বদদোয়া থেকে আমি বাঁচতে চাই। আমি পর্দা করতে চাই আর তাদের ও অসন্তুষ্টির কারণ হতে চাই না। কি করা উচিৎ আমার উস্তাজ? (সবভাবে বুঝানো শেষ। তারাও বুঝেন কিন্তু কোনো কিছুই যে আমার পক্ষে নাই। আমার প্রতিটা কাজ, তাদের জন্য করা খিদমতে ও তাদের খোটা, অসন্তুষ্টি, অসমতা আমাকে খুবই কষ্ট দেয়।)

দ্বীনী ইলম বা সফলতা এসব কাউকে জানাতে ইচ্ছা হয় না। খুব বেশি বদনজর এর স্বীকার হয়েছিলাম। আত্মীয়দের হিংসা আর বদনজর এসব এর পিছনে অন্যতম কারণ আমার মা বাবার আমাকে নিয়ে অধিক প্রশংসা। আমি যদি দ্বীনি ইলম অর্জন কোথায় করছি, কতটুকু এগিয়েছি, কোন প্রতিষ্ঠানে খদিমাহ এসব তাদের থেকে গোপন রাখি। এটা কি বেমুনাসিব হয়ে যাবে? আমার খুব ইচ্ছা হয় তাদেরকে জানাই, দুআ চাই। কিন্তু ওইসব মনে পড়লে ভয় হয় অনেক!

1 Answer

0 votes
by (746,320 points)
ওয়া আলাইকুমুস সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু।
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
যদি কেউ কোনো মহিলাকে বিয়ে করার পূর্ণ ইচ্ছা করে নেয়,তাহলে ঐ মহিলাকে দেখতে পারবে।কথা বলতে পারবে।
হযরত জাবের ইবনে আব্দুল্লাহ রাযি থেকে বর্ণিত,
(إِذَا خَطَبَ أَحَدُكُمْ الْمَرْأَةَ ، فَإِنْ اسْتَطَاعَ أَنْ يَنْظُرَ إِلَى مَا يَدْعُوهُ إِلَى نِكَاحِهَا ، فَلْيَفْعَلْ)
যদি কেউ কোনো মহিলাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে চায়,তাহলে সে যেন যযথাসম্ভব ঐ মহিলাকে দেখে নেয়।(সুনানু আবি দাউদ-২০৮২)এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন-https://www.ifatwa.info/29724

বিয়ের প্রস্তাব প্রদানের পূর্বে বায়োডাটা প্রেরণ করা হবে।তবে ছবি প্রেরণ করা যাবে না।বরং পাত্র পক্ষের কোনো এক মহিলা সরাসরি পাত্রীকে দেখে আসবে।

আর প্রস্তাব দেয়ার পর যথাসম্ভব সরাসরি দেখার চেষ্টা করা হবে।কেননা যে হেকমতে পাত্রী দেখার কথা বলা হচ্ছে,সেটা একমাত্র সরাসরি দেখার মাধ্যমেই সম্ভব হবে।হ্যা কোনো কারণে(যেমন পাত্র থেকে পাত্রী অনেক দূরে অবস্থানরত)যদি পাত্র-পাত্রীকে সরাসরি দেখা সম্ভব না হয়,তাহলে ভিডিওকলের মাধ্যমে নিম্নোক্ত লিংকে বর্ণিত শর্তাদির সাথে দেখা যেতে পারে।কেননা ছবির তুলনায় ভিডিওর হুকুমে কিছুটা শীতিলতা রয়েছে।বিস্তারিত জানুন-https://www.ifatwa.info/2898

সু-প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!
আপনি ভিডিওকলে পাত্র বা পাত্রের মা বোনদের সাথে কথা বলে নিতে পারেন। ভিডিওকলে কথা বলা সম্ভব না হলে, তখন ছবি দিতে পারবেন।এক্ষেত্রে যদি অন্য কেউ দেখে নেয়, তাহলে যিনি দেখবেন,ও যারা অন্যকে দেখাবেন, তাদের গোনাহ হবে। আপনার এক্ষেত্রে কোনো গোনাহ হবে না।


দ্বীনী ইলম বা সফলতা এসব অন্যকে এ নিয়তে জানাতে পারবেন,যাতে অন্যজন উৎসাহী হয়। এটাই অনেক সময় দাওয়াতের কাজ করে।আল্লাহ আপনাকে তাওফিক দান করুক।আমীন।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন। এই প্রশ্ন ও উত্তরগুলো আমাদের ফেসবুকেও শেয়ার করা হবে। তাই প্রশ্ন করার সময় সুন্দর ও সাবলীল ভাষা ব্যবহার করুন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি স্থানীয় মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

Related questions

...