0 votes
119 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (4 points)
আসসালামু আলাইকুম

১) ওজর বিল জাহালত আদৌ আছে?  এর সনদ কী শক্তিশালী নাকি দুর্বল?
২) হুরমতের ক্ষেত্রে কেউ যদি নিশ্চিত না হয় যে হুরমত হয়েছিল কি না এবং সেক্ষেত্রে যদি হয়নি বলে ধরে নেয় (যেহেতু সন্দেহের ভিত্তিতে হুরমত প্রমাণিত হয়না) কিন্তু প্রকৃতপক্ষে যদি তা হুরমত হয়,তাহলে কি তা ওজর বিল জাহালতের অন্তর্ভুক্ত? এবং যদি কোনো কন্যা তার পিতার সাথে হুরমত সম্পর্কে নিশ্চিত না থাকার কারণে হুরমত প্রমাণিত হয়নি বলে ধরে নেয় কিন্তু প্রকৃতপক্ষে হুরমত প্রমাণিত হয় এবং পিতা এ ব্যাপারে কিছু জানেনা, সাধারণভাবে নিজের স্ত্রী (সেই কন্যার মাতা) এর সাথে সংসার করে, এক্ষেত্রে কি সেই পিতা-মাতার বিবাহবিচ্ছেদ হবে এবং যিনার গুনাহ হবে?যেহেতু তারা অবগত নয় এ বিষয়ে

এবং সেই কন্যা ( যে নিশ্চিত ছিলোনা যে হুরমত হয়েছে কিনা তাই হয়নি বলে ধরে নিয়েছে )  তার কতটুক গুনাহ হবে এবং পরকালে এর জন্যে তার শাস্তি হলে তা কি তওবার মাধ্যমে ক্ষমাযোগ্য?

৩) মুফতি ওলি উল্লাহ হুজুর,আপনার সাথে যোগাযোগের মাধ্যম পাওয়া যাবে? ফেসবুক মেসেঞ্জার আইডি বা ফোন নাম্বার কিংবা ওয়াটসএপ নাম্বার?

(আমার মাসের ৪ টি প্রশ্ন করা শেষ,দয়া করে কমেন্ট বক্সে প্রশ্ন করলে খেয়াল কইরেন)

1 Answer

0 votes
by (382,000 points)
জবাব
وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته 
بسم الله الرحمن الرحيم 


(০১)
ওযর বিল জাহালত শরীয়তে রয়েছে।
ওযর বিল জাহালত এর দ্বারা শরয়ী শাস্তি ইত্যাদী তার উপর আরোপ করা  হয়না।

শরীয়তের বিধান অনুযায়ী ঐ জাহালত অযর হতে পারবে,যেক্ষেত্রে সে হুকুম সম্পর্কেই অজ্ঞ।
এই জন্য কেহ যদি ফরজ ওয়াজিব বিধান কে এই জন্য না পড়ে যে সে উক্ত বিধান ফরজ ওয়াজিব হওয়া সম্পর্কে  জানতোনা।

অথবা সে কোনো হারাম কাজ এই জন্য করেছে যে সে তাহার হারাম হওয়া সম্পর্কে  জানতোনা,তো তার এই অজ্ঞতার শরীয়তে গ্রহনযোগ্যতা আছে।
এর ভিত্তিতে তাকে তাকে শাস্তি  দেওয়া হবেনা। সে অজ্ঞতার কারনে মা'যুর।

রাসূলুল্লাহ সাঃ বলেন,

وقوله صلى الله عليه وسلم : ( إِنَّ اللَّهَ قَدْ تَجَاوَزَ عَنْ أُمَّتِي الْخَطَأَ، وَالنِّسْيَانَ، وَمَا اسْتُكْرِهُوا عَلَيْهِ) رواه ابن ماجه (2043) 

নিশ্চয় আল্লাহ তা'আলা আমার উম্মতের অজ্ঞতা ও ভূলভাল কে ক্ষমা করে দিবেন।এবং অপারগতা বশত কৃত গোনাহকেও ক্ষমা করে দিবেন।(সুনানে ইবনে মা'জা,-২০৪৩)

★কিন্তু যে ব্যাক্তি জানে যে উক্ত কাজ করা হারাম,কিন্তু সে তার শাস্তি সম্পর্কে  অবগত নয়,এই ভিত্তিতে যদি সে কোনো হারাম কাজ করে,তাহলে এটাকে ওযর হিসেবে ধরা হবেনা।

কেননা সে এই কাজ হারাম জানা সত্ত্বেও করেছে।
যেমন কেহ যেনা করেছে,কিন্তু সে জানেনা যে এটা হারাম কাজ,তাহলে তার এই অজ্ঞতা অযর হিসেবে ধরা হবে।

আর যদি সে জানতো যে এটা হারাম কাজ,কিন্তু দন্ড বিধি সম্পর্কে  জানেনা,তাহলে এটা ওযর হিসেবে ধরা হবেনা।

বিস্তারিত  জানুন

(০২)
নিশ্চিত না থাকার কারণে হুরমত প্রমাণিত না হলে আবার প্রকৃতপক্ষে হুরমত প্রমাণিত হয় কিভাবে?
প্রকৃতভাবেও হুরমত সাব্যস্ত হয়নি বলেই ধরা হবে।
,
হুরমতে মুসাহারাত প্রমাণিত হওয়ার ক্ষেত্রে যদি সন্দেহ হয় যে সমস্ত শর্ত পাওয়া গেছে কিনা?
এতে যদি তার কোনোদিকে প্রবল ধারনা না হয়,তাহলে হুরমতে মুসাহারাত প্রমানীত হবেনা।
 প্রকৃতভাবেও হুরমত সাব্যস্ত হয়নি বলেই ধরা হবে।
,
প্রশ্নে উল্লেখিত বাবা মার কোনো গুনাহ হবেনা।
তাদের ওযর বিল জাহালত গ্রহনযোগ্য। 
,
(০৩)
এখানে প্রাইভেট মেসেজ পাঠাতে পারেন।
 কমেন্য বক্সে প্রশ্ন না করে এখানে যেকোনো মুফতী সাহেবের প্রাইভেট মেসেজ পাঠাতে পারেন।
জাযাকাল্লাহ।  


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

------------------------
মুফতী ওলি উল্লাহ
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...