0 votes
61 views
in হালাল ও হারাম (Halal & Haram) by (22 points)
বাসে কোন গায়রে মাহরাম নারী পাশে বসলে কী গুণাহ হবে? কোন নারী যদি পরে এসে বসে তাহলে গুনাহটা কী শুধু নারীর নাকি উভয়ের হবে? কোন নারী পরে এসে পাশে বসে থাকা যাবে কী? উত্তম কাজ কী হবে?

1 Answer

+1 vote
by (39.3k points)
বিসমিহি তা'আলা

সমাধানঃ-

নারী-পুরুষের পৃথক পৃথক যানবাহন হওয়াই উচিৎ ছিলো।যে ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব ছিলো সরকার মহলের।সে জন্য এর জবাবদিহিতা সরকারকেই করতে হবে।এবং এমন মন-মানষিকতা সম্পন্ন সরকার কেন আমরা সবাই গঠন করিনি,সেজন্য আমাদের সবাইকে পরকালে জবাবদিহি করতে হবে।
আল্লাহ মুসলিম উম্মাহকে আবার এক খলিফার অধিনে কুরআনি শাষনে নিয়ে আসুক,আমীন।

যাইহোক,যেহেতু ইসলামি হুকুমত প্রতিষ্টার প্রধানতম দায়িত্ব পুরুষের,সেটা যখন সম্ভব হয়নি, তাই অন্তত যানবাহনে মহিলার জন্য সিট ছেড়ে  দেয়ার কাজটা পালন করা পুরুষ দায়িত্ব ও একান্ত কর্তব্য।

তাছাড়া শারিরিক গঠন হিসেবেও যানবাহনে পুরুষের জন্য দাড়িয়ে যাওয়াটা যুক্তিসংগত।

তাই দুজনি কোনো সিটে প্রথমেই কোনো নারী বসে থাকলে সেখানে অন্য কোনো নারীকে বসতে দেয়াই উচিৎ।যদি অন্যকোনো নারী না বসে,তাহলে সেটা খালি ছেড়ে দেয়াই উচিৎ।পুরুষ দাড়িয়ে যাবেন।

অন্যদিকে কোনো দুজনি সিটে প্রথমেই কোনো পুরুষ বসে থাকলে পুরুষের উচিৎ নিজে দাড়িয়ে মহিলাকে বসতে দেয়া।

هذا ما خطر بالبال والله أعلم بحقيقة الحال
আল্লাহ-ই ভালো জানেন।

উত্তর লিখনে

মুফতী ইমদাদুল হক

ইফতা বিভাগ, IOM.

পরিচালক

ইসলামিক রিচার্স কাউন্সিল বাংলাদেশ

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার দ্বীন সম্পর্কীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য রয়েছে আমাদের  অভিজ্ঞ ওলামায়কেরাম ও মুফতি সাহেবগনের একটা টিম যারা ইনশাআল্লাহ প্রশ্ন করার ২৪-৪৮ ঘন্টার সময়ের মধ্যেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।

...