+1 vote
12 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (14 points)
edited by
মা ছেলেকে আদর করার জন্যে স্পর্শ করল।ছেলে উত্তেজনা অনুভব করল।এক্ষেত্রে কি অই মা এবং তার স্বামীর মাঝে হুরমতে মুসাহারাত সাব্যস্ত হবে?এখানে স্পর্শ করেছে মা,উত্তেজনা অনুভব করেছে ছেলে।মায়ের তো কিছু করার ছিল না,মায়ের তো এর উপর কোন নিয়ন্ত্রণ নেই।ektu porishkar kore bolle khub valo how..

1 Answer

0 votes
by (14,240 points)
জবাব
بسم الله الرحمن الرحيم 

শরীয়তের বিধান মতে প্রশ্নে উল্লেখিত ছুরতে  মা ছেলেকে আদর করার জন্য সরাসরি খালি গায়ে বা এমন কাপড়ের উপর দিয়ে স্পর্শ করে, যা এতটাই পাতলা যে, শরীরের উষ্ণতা অনুভব হয়।
স্পর্শ করার পর ছেলের উত্তেজনা যদি এমন হয় যে
মা এর স্পর্শের সাথে সাথে তার ছেলের লিঙ্গ দাড়িয়ে যায়,
আর পূর্ব থেকে দাঁড়িয়ে থাকলে স্পর্শ করার পর যদি উত্তেজনা আরো বৃদ্ধি পায়,তাহলে হুরমতে মুসাহারাত প্রমানীত হবে। 
তার মা তার বাবার জন্য সারাজীবনের জন্য হারাম হয়ে যাবে।    
তাদের মাঝে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যাবে।
যদিও এখানে স্পর্শ করেছে মা,উত্তেজনা অনুভব করেছে ছেলে।
কারন ২ জনের এক জন বর্ণিত উত্তেজনা  অনুভব করলেই হুরমতে মুসাহারাত প্রমানীত হবে।    
,
আর যদি ছেলে এমন উত্তেজনা অনুভব না করে,  হুরমতে মুসাহারাত প্রমানীত হবেনা।   

فى الدر المختار- أو لمس ) ولو بحائل لا يمنع الحرارة
وقال ابن عبدين– ( قوله : بحائل لا يمنع الحرارة ) أي ولو بحائل إلخ ، فلو كان مانعا لا تثبت الحرمة ، كذا في أكثر الكتب (الفتاوى الشامية، كتاب النكاح، فصل فى المحرمات-3/107-108)
যার সারমর্ম হলো 
সরাসরি খালি গায়ে বা এমন কাপড়ের উপর দিয়ে স্পর্শ করে, যা এতটাই পাতলা যে, শরীরের উষ্ণতা অনুভব হয়। যদি এমন মোটা কাপড় পরিধান করে থাকে যে, শরীরের উষ্ণতা অনুভূত না হয়, তাহলে নিষিদ্ধতা সাব্যস্ত হবে না।

وفى الدر المختار- وحدها فيهما تحرك آلته أو زيادته به يفتى
وفى الدر المختار- والعبرة للشهوة عند المس والنظر لا بعدهما
وفى رد المحتار- ( قوله : والعبرة إلخ ) قال في الفتح : وقوله : بشهوة في موضع الحال ، فيفيد اشتراط الشهوة حال المس ، فلو مس بغير شهوة ، ثم اشتهى عن ذلك المس لا تحرم عليه (رد المحتار-كتاب النكاح، فصل فى المحرمات-4/108)

যার সারমর্ম হলো
পুরুষের উত্তেজনা অনুভূত হওয়ার লক্ষণ হলোঃ লিঙ্গ দাঁড়িয়ে যাওয়া, আর পূর্ব থেকে দাঁড়িয়ে থাকলে স্পর্শ করার পর উত্তেজনা বৃদ্ধি পাওয়া।
 স্পর্শ করার সময় উত্তেজিত হতে হবে। যদি স্পর্শ করার সময় কেউ উত্তেজিত না হয়, তাহলেও নিষিদ্ধতা প্রমাণিত হবে না। সেই সাথে স্পর্শ করার আগে বা শেষে, হাত ছেড়ে দেওয়ার আগে বা পর যদি উত্তেজনা অনুভূত হয় তাহলেও নিষিদ্ধতা সাব্যস্ত হবে না।
,
বিস্তারিত জানুন


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

------------------------
মুফতী ওলি উল্লাহ
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...