0 votes
16 views
in সালাত(Prayer) by (2 points)

আসসালামু আ'লাইকুম

মুহতারাম

৪র্থ রাকাতে ইমাম শেষ বৈঠকে না বসে (রাকাত ৩ নাকি ৪ আংশকায় কম রাকাত মনে করে) দাড়িয়ে গিয়েছেন। পেছন থেকে মুক্তাদি আল্লাহু আকবর তাকবীর দিয়েছেন। ইমাম ৫ম রাকাত পূর্ণ করে সাহু সেজদা দিয়ে নামাজ শেষ করেছেন।

  1. এক্ষেত্রে সবার নামায কি আদায় হয়েছে
  2. এমন ক্ষেত্রে ইমামে্র  কি করা উচিত ছিল
  3. এমন ক্ষেত্রে মুক্কতাদির করণীয় কি
  4. নামাযে মধ্যে ভুলে দাঁড়িয়ে বা বসে গেলে করণিয় কি
 
জাজাকাল্লাহু খইরন 
 
 
 

1 Answer

0 votes
by (306,320 points)


ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু।
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
https://www.ifatwa.info/7490 নং ফাতাওয়ায় বলেছি যে,

নামাজের ফরয ১৩ টি
[৭ টি নামাজের বাহিরে ]
১/ শরীর পাক
২/কাপড় পাক
৩/ নামাজের জায়গা পাক
৪/ সতর ডাকা
৫/ কেবলামুখী হওয়া
৬/ নামাজের ওয়াক্ত চেনা
৭/ নিয়্যাত করা

[ ৬ টি নামাজের ভিতরে ]
১/ তাকবীরে তাহরিমা বা আল্লাহু আকবার বলা
২/ দাঁড়াইয়া নামাজ পড়া
৩/ কেরাত পড়া
৪/ রুকু করা
৫/ সেজদা করা
৬/ শেষ বৈঠক

নামাযের শেষ বৈঠকে কেউ না বসে দাড়িয়ে গেলে তখন ঐ ব্যক্তি আবার বসে যাবে, এবং তাশাহুদ দুরুদ ইত্যাদি পড়ে তারপর শেষে সাহু সিজদা দিয়ে নামাযকে সমাপ্ত করবে। তাকবীর বলার কোনো প্রয়োজন নাই। হ্যা ইমাম হলে সবাইকে অবগত করার জন্য তাকবীর বলা যেতে পারে। তবে জরুরী নয়।

সুপ্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনি ভাই/বোন!
নামাযে কোনো ফরযকে আদায় না করলে নামাযই ফাসিদ হয়ে যায়।যেহেতু শেষ বৈঠক ফরয।এবং যেহেতু শেষ বৈঠককে আদায় করা হয়নি, তাই নামাযই ফাসিদ হয়ে গিয়েছে। মুক্তাদিদের তাকবীর প্রদান সঠিকই ছিল।
পঞ্চম রাকাতের পর সাহু সিজদা গ্রহণযোগ্য হবে না।বরং পঞ্চম রাকাতে দাড়ানোর পর বসে না যাওয়ার দরুণ উক্ত ফরয নামাযই ফাসিদ হয়ে গেছে। হ্যা কেউ যদি আরো এক রাকাত মিলিয়ে মোট ছয় রাকাত পড়ে নেয়, তাহলে শেষ দুই রাকাত নফল হিসেবে গণ্য হবে।এবং প্রথম ৪ রাকাত ফাসিদ হয়ে যাবে।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (31 points)
মুফতী ইমদাদুল হক শায়েখ ইমাম যদি ৫ রাকাতে উঠে যাবার পরেও মুক্তাদির লোকমা শুনার পরে শেষ বৈঠক শেষে সাহু সিজদাহ করতো তাহলে তো মনে হয় নামায হয়ে যেতো। আপনাদের একটা ফাতওয়াতে এমনটাই দেখছিলাম।  


by (306,320 points)
পঞ্চম রাকাতের রুকু করার পূর্বে যদি ইমাম বসে গিয়ে সাহু সিজদা করে নেন, তাহলে নামায হয়ে যাবে।পঞ্চম রাকাতের রুকু করার পর আর নামায বিশুদ্ধ থাকবে না বরং ফাসিদ হয়ে যাবে।

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...