0 votes
80 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (10 points)
আসসালামু আলাইকুম
১. নামাজের সিজদায় আল্লাহর ৯৯ নাম পড়া যাবে কিনা?

২. আকিকা বা নাম রাখার সময় নামের পাশে বাবার নাম যুক্ত করা হয় নি। আমি এখন যুক্ত করলে জায়েজ হবে কিনা?

৩. আমরা বিভিন্ন সময়ে নিয়ত করি ❝আমার এ কাজটা হলে ২ রাকাত নফল নামাজ পড়বো❞ এই নিয়ত জায়েজ কিনা?

৪. অজুতে ঘাড় মাসেহ করা কি জায়েজ নাকি বিদায়াত?

৫. চুল আঁচড়ানোর পর যে চুল ঝরে তা কোথায় ফেলতে হবে? যেহেতু ঢাকাতে পানিতে ফেলা বা মাটিতে পুঁতে ফেলার সুযোগ নেই।
৬. আমার বোন বার বার স্বপ্নে দেখছে আমার মৃত মা মৃত্যুর পর আবার পৃথিবীতে ফিরে এসেছে। এ স্বপ্নের ব্যাখা কি?

1 Answer

0 votes
by (469,840 points)
edited by


ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু।
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহাম।
জবাবঃ-
(১)
জ্বী,পড়া যাবে।একাকি ফরয নামায বা নফল নামাযে পড়া যাবে। তবে ইমাম সাহেব পড়তে পারবেন না।কেননা এতেকরে নামায দীর্ঘ হয়ে যাবে।

(২)
জ্বী, সমস্যা নেই,এখনও যুক্ত করা যাবে।

(৩)
জ্বী,জায়েয।

(৪)
ঘাড় মাসেহ করা মুস্তাহাব।
https://www.ifatwa.info/8979 নং ফাতাওয়ায় বলেছি যে,
গর্দান মাসেহ করা সম্পর্কে যে সমস্ত হাদীস পাওয়া যাচ্ছে সনদ বা সুত্র পরস্পরা বিবেচনায় তা দুর্বল বা য'ঈফ।
বিধায় এসমস্ত হাদীস দ্বারা ওয়াজিব বা সুন্নাত প্রমাণ করা যায় না তবে অবশ্যই তা দ্বারা মুস্তাহাব প্রমাণিত হয়।
সুতরাং গর্দান মাসেহ করা মুস্তাহাব।

প্রথম হাদীস যাতে গর্দান মাসেহ করার কথা বর্ণিত হয়েছে।
ﻗﺎﻝ : ﺣﺪﺛﻨﺎ ﻋﺒﺪﺍﻟﺼﻤﺪ ﺑﻦ ﻋﺒﺪﺍﻟﻮﺍﺭﺙ، ﻗﺎﻝ : ﺣﺪﺛﻨﻲ ﺃﺑﻲ ﻗﺎﻝ : ﺣﺪﺛﻨﺎ ﻟﻴﺚ، ﻋﻦ ﻃﻠﺤﺔ، ﻋﻦ ﺃﺑﻴﻪ، ﻋﻦ ﺟﺪﻩ، ﺃﻧﻪ ﺭﺃﻯ ﺭﺳﻮﻝ ﺍﻟﻠﻪ ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ ﻳﻤﺴﺢ ﺭﺃﺳﻪ ﺣﺘﻰ ﺑﻠﻎ ﺍﻟﻘﺬﺍﻝ ﻭﻣﺎ ﻳﻠﻴﻪ ﻣﻦ ﻣﻘﺪﻡ ﺍﻟﻌﻨﻖ ﺑﻤﺮﺓ
ﻗﺎﻝ : ﺍﻟﻘﺬﺍﻝ ﺍﻟﺴﺎﻟﻔﺔ ﺍﻟﻌﻨﻖ
তালহা ইবনে মুসাররিফ রাহ বলেন তার পিতা তার দাদা আমর আবনে ইবনে কা'ব বলেছেন,তিনি নবীজী সাঃ কাযাল(মাথার শেষ ও গর্দিনের প্রথম অংশ) ও তার আশপাশ গর্দানের প্রথম অংশ পর্যন্ত মাথা মাসেহ করতে দেখেছেন।
মুসনাদে আহমদ-৩/৪১৮
(৫)
সম্ভব হলে দাফন করতে হবে।নতুবা এমন স্থানে ফেলতে হবে,যেখানে অসম্মান হবে না।
(৬)
উনি সুখেই আছেন।উনার জন্য আপনারা ঈসালে সওয়াব করুন।নফল ইবাদত করে উনার রুহের মাহফিরাতের জন্য পৌছিয়ে দেন।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (469,840 points)
সংযোজন ও সংশোধন করা হয়েছে।

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...