+2 votes
40 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (4 points)
(১) চার প্রধান মাযহাব না মেনে অন্য যেকোনো ইমাম যেমন ইমাম ইবনে তাইমিয়া কে অনুসরণ করলে কি কোন সমস্যা হবে?

(২) ধরুন আমি হানাফী মাযহাবের অনুসারী কিন্তু কোনো একটি বিষয়ে আমার কাছে অন্য একটি মাজহাবের ফতোয়া বা সিদ্ধান্ত অধিকতর শক্তিশালী ও যুক্তিযুক্ত বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে আমি হানাফী মাযহাবের অনুসারী হয়েও অন্য মাযহাবের সেই ফতোয়াটি অমল করতে পারব কিনা?

1 Answer

0 votes
by (4,480 points)
edited by
উত্তর 
بسم الله الرحمن الرحيم 
 
(০১) চার প্রধান মাযহাব না মেনে অন্য যেকোনো ইমাম যেমন ইমাম ইবনে তাইমিয়া কে অনুসরণ করতে পারবেন।
এক্ষেত্রে আপনার একমাত্র উদ্দেশ্য থাকতে হবে কুরআন হাদীসকে সঠিক ভাবে অনুসরণ করে আল্লাহর প্রিয় বান্দা হওয়া। প্রবৃত্তি পূজা যেনো না হয়।

তবে পুরোপুরি শরীয়তের উপর চলতে হলে যেহেতু উলামায়ে কেরামদের থেকে আপনাকে মাসয়ালা জেনে নিতে হবে,এক্ষেত্রে নিজ এলাকায়,বা নিজ দেশে সেই মতের আলেম উলামা থাকা চাই।  
নতুবা আপনি পুরোপুরি ভাবে সেই মতের উপর চলতে পারবেননা।  
তাই আপনার এলাকার উলামায়ে কেরামগন যেই মত মানেন,সেটাই মানা আপনার জন্য জরুরি।  
তাহলে আপনি পুরোপুরি শরীয়তের উপর চলতে পারবেন। ইনশাআল্লাহ  

★জ্ঞাতব্য বিষয় যে  অনেক উলামায়ে কেরামগন বলেন যে চার মাযহাবের যেকোনো এক মাযহাব মানা ওয়াজিব। 
এ মতটিও ছহিহ আছে। 
  
,
(০২) সেহেতু আপনি হানাফি মাযহাবকে ফলো করেন,তাই সর্বক্ষেত্রে হানাফি মাযহাবকেই ফলো করবেন।কোনো একটি মাস'আলায় অন্য কোনো মাযহাবকে অনুসরণ করতে পারবেন না।
,
হ্যা আপনার জন্য এ সুযোগ রয়েছে যে,আপনি মাযহাবকে চেঞ্জ করে নিবেন।অর্থাৎ প্রথমে যদি কোনো এক মাযহাবকে ফলো করে থাকেন,তাহলে পরবর্তীতে সকল মাস'আলা ভিন্ন কোনো মাযহাবকে ফলো করতে পারবেন।এই চেঞ্জ করার একমাত্র উদ্দেশ্য থাকতে হবে কুরআন হাদীসকে সঠিক ভাবে অনুসরণ করে আল্লাহর প্রিয় বান্দা হওয়া। প্রবৃত্তি পূজা যেনো না হয়। 
বিস্তারিত জানতে পড়ুন 

,
উত্তর লিখনে
মুফতী ওলি উল্লাহ    
ইফতা বিভাগ IOM  


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

------------------------
মুফতী ওলি উল্লাহ
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (4 points)
আপনার ফতোয়ায় রেফারেন্স নেই কিন্তু অসাধারণ ক্ষুরধার, যৌক্তিক, যুগোপযোগী ও প্রজ্ঞাপূর্ণ সে সাথে  গ্রহণযোগ্য তথা আমলযোগ্য। 

আল্লাহতালা আপনার এলেমের পরিধি উত্তরোত্তর বাড়িয়ে দিক। 

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...