+1 vote
92 views
in হালাল ও হারাম (Halal & Haram) by (1 point)

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু উস্তাজ। সহবাসের সময় স্ত্রী নিজে নিজের লজ্জাস্হানে কি হাত দেওয়া/লজ্জাস্থান এর স্পর্শকাতর  /উত্তেজনাপ্রবণ স্থানে নিজে হাত দিয়ে যৌনসুখ লাভ করা কি জায়েজ? 

 

উল্লেখ্য, এখানে মাস্টারবেট করা বুঝিয়েছি না। স্বামী-স্ত্রীর সহবাস চলাকালীন সময়ে স্ত্রী নিজে নিজের লজ্জাস্থান স্পর্শ করে যৌনসুখ লাভ করতে পারবে কিনা?       

1 Answer

0 votes
by (127,640 points)
জবাব
وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته 
بسم الله الرحمن الرحيم 


আল্লাহ তা'আলা বলেন,

نِسَآؤُكُمْ حَرْثٌ لَّكُمْ فَأْتُواْ حَرْثَكُمْ أَنَّى شِئْتُمْ وَقَدِّمُواْ لأَنفُسِكُمْ وَاتَّقُواْ اللّهَ وَاعْلَمُواْ أَنَّكُم مُّلاَقُوهُ وَبَشِّرِ الْمُؤْمِنِينَ

তোমাদের স্ত্রীরা হলো তোমাদের জন্য শস্য ক্ষেত্র। তোমরা যেভাবে ইচ্ছা তাদেরকে ব্যবহার কর। আর নিজেদের জন্য আগামী দিনের ব্যবস্থা কর এবং আল্লাহকে ভয় করতে থাক। আর নিশ্চিতভাবে জেনে রাখ যে, আল্লাহর সাথে তোমাদেরকে সাক্ষাত করতেই হবে। আর যারা ঈমান এনেছে তাদেরকে সুসংবাদ জানিয়ে দাও।(সূরা বাকারা-২২৩)

আল্লাহ অত্র আয়াতে স্ত্রীর সাথে সহবাস ও স্ত্রীর নিকট থেকে ফায়দা গ্রহণের মূলনীতি মূলক আলোচনা করছেন।সুতরাং পিছনের রাস্তা ব্যতীত স্ত্রীর কাছ থেকে যেকোনো পদ্ধতিতে ফায়দা গ্রহণ করা যাবে, এ অনুমতি রয়েছে।
,
★সুতরাং সহবাসের সময় স্বামী স্ত্রীর লজ্জাস্হানে হাত দেওয়া/লজ্জাস্থান এর স্পর্শকাতর  /উত্তেজনাপ্রবণ স্থানে নিজে হাত দিয়ে যৌনসুখ লাভ করা জায়েজ আছে।

 এবং স্ত্রী স্বামীর লিঙ্গ হাতে নিয়ে  বা স্বামীর উত্তেজনাপ্রবণ স্থানে নিজে হাত দিয়ে যৌনসুখ লাভ করতে পারবে।
,
এখন বিষয় হলো স্ত্রী কি নিজ লজ্জাস্থানে নিজ হাত দিয়ে /উত্তেজনাপ্রবণ স্থানে নিজে হাত দিয়ে যৌনসুখ লাভ করতে পারবে কিনা?

★শরীয়তের বিধান মতে হাত বা অন্য কিছুর মাধ্যমে বীর্যপাত, স্বমৈথুন বা হস্তমৈথুন করা কোরআন সুন্নাহ ও সুস্থ বিবেকের নির্দেশ মতে হারাম ও কবিরা গুনাহ।

আব্দুল্লাহ ইবন আমর ইবন আস রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-

عبد الله بن عمرو بن العاص عن النبي صلى الله عليه وسلم سبعة لا ينظر الله عز وجل إليهم يوم القيامة ولا يزكيهم ويقول : ادخلوا النار مع الداخلين : الفاعل والمفعول به ، والناكح يده ، وناكح البهيمة ، وناكح المرأة في دبرها ، وناكح المرأة وابنتها ، والزاني بحليلة جاره ،والمؤذي لجاره حتى يلعنه

“সাত শ্রেণীর লোকের উপর আল্লাহ অভিশাপ বর্ষণ করেন, কিয়ামতের দিন এদের দিকে তাকাবেন না এবং এদেরকে জাহান্নামে প্রবেশের আদেশ দিবেন। এরা হল–সমকামী, হস্তমৈথুনকারী, জীবজন্তুর সাথে সঙ্গমকারী, স্ত্রীর সঙ্গে পুংমৈথুনকারী, কোন মহিলা ও তার কন্যাকে একসাথে বিবাহকারী, প্রতিবেশীর স্ত্রীর সাথে ব্যভিচারকারী এবং প্রতিবেশীকে এমন কষ্টদানকারী যে, যার কারণে সে তাকে অভিশাপ দেয় । তবে এরা যদি তাওবা করে তাহলে তারা সবাই হয়ত ক্ষমা পেতে পারে।” (বাইহাকী, শুয়াবুল ঈমান৭/৩২৯)
,
★প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনি ভাই বোন,
প্রশ্নে উল্লেখিত কাজ যেহেতু সহবাসের সময় যৌনসুখ বাড়ানোর জন্য,এটি হস্তমৈথুন নয়,তাই এটি করে  যৌনসুখ লাভ করা যাবে।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

------------------------
মুফতী ওলি উল্লাহ
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by
 যদি স্ত্রী স্বামীর যৌণ অঙে মুখ দেয় (অবশ্যই স্বামীর অনুমতি স্বাপেক্ষে)  এবং স্বামী ও যদি স্ত্রীর যৌণ অঙে মুখ দেয় এক্ষেত্রে কি বিধিনিষেধ আছে?     

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...