+1 vote
47 views
in হালাল ও হারাম (Halal & Haram) by (1 point)
আসসালামু আলাইকুম। আমি অনলাইনে লিড জেনারেশন (B2B) ও ডেটা এন্ট্রি রিলেটেড কাজে আগ্রহী। লিড জেনারেশনের মাধ্যমে সম্ভাব্য ব্যক্তির/কোম্পানির  ইমেল, ফোন নম্বর এবং অন্যান্য তথ্য সংগ্রহ করা হয় ব্যক্তির/কোম্পানির  ওয়েবসাইট,ফেসবুক,লিনকডিন প্রফাইল থেকে।কোনো ক্ষেত্রে ইমেইল না পাওয়া গেলে গুগল সার্চ বা বিভিন্ন এক্সটেনশন এর মাধ্যমে ইমেইল বের করা হয়।শায়খ আমার প্রশ্ন হচ্ছে, ইসলামের দৃষ্টিতে এটি কী হালাল ও ডেটা সংগ্রহে ব্যক্তির পারমিশনের বিষয়টি বিবেচ্য কীনা?

1 Answer

0 votes
by (145,240 points)
ওয়া আলাইকুম আসসালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহ।
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
9645 নং ফাতাওয়ায় আমরা বলেছি যে,
যারা এরকম উত্যক্তকারী ইমেইল থেকে বাঁচতে নিজের ইমেইলকে লুকিয়ে রাখে,তাদের ইমেইলকে খুঁজে বের করে মেসেজ প্রেরণ করা কখনো জায়েয হবে না।

আল্লাহ তা'আলা বলেন,
وَالَّذِينَ يُؤْذُونَ الْمُؤْمِنِينَ وَالْمُؤْمِنَاتِ بِغَيْرِ مَا اكْتَسَبُوا فَقَدِ احْتَمَلُوا بُهْتَانًا وَإِثْمًا مُبِينًا
যারা বিনা অপরাধে বিশ্বাসী পুরুষ ও নারীদেরকে কষ্ট দেয়, তারা অবশ্যই মিথ্যা অপবাদ এবং স্পষ্ট অপরাধের বোঝা বহন করে। (সূরা ৩৩ আহযাব: ৫৮)

আবূ মুসা রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত,
وَعَنْ أَبي مُوسَى رضي الله عنه قَالَ: قُلْتُ: يَا رَسُولَ اللهِ صلى الله عليه وسلم أَيُّ المُسْلمِينَ أَفْضَلُ ؟ قَالَ: «مَنْ سَلِمَ المُسْلِمُونَ مِنْ لِسَانِهِ وَيَدِهِ
তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে জিজ্ঞাসা করলাম, ‘হে আল্লাহর রাসূল! সর্বোত্তম মুসলিম কে?’ তিনি বললেন, “যার জিহ্বা ও হাত থেকে মুসলিমরা নিরাপদ থাকে।” (বুখারী:৯, মুসলিম: ৪২, তিরমিযী, নাসাঈ, মুছান্নাফ সহ)

আবদুল্লাহ ইবনু ‘আমর (রাঃ) হতে বর্ণিত।
عن عبد الله بن عمرو رضي الله عنهما عن النبي صلى الله عليه وسلم قال المسلم من سلم المسلمون من لسانه ويده والمهاجر من هجر ما نهى الله عنه
আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, সে-ই স(প্রকৃত) মুসলিম, যার জিহবা ও হাত হতে সকল মুসলিম নিরাপদ এবং সে-ই প্রকৃত মুহাজির, আল্লাহ যা নিষেধ করেছেন তা যে ত্যাগ করে।(বুখারী:১০; মুসলিম ১/১৪ হাঃ ৪০, আহমাদ: ৬৭৬৫)

আবূ হুরাইরাহ (রাযিঃ) হতে বর্ণিত।
عن أبي هريرة قال قال رسول الله صلى الله عليه وسلم من كان يؤمن بالله واليوم الآخر فلا يؤذ جاره ومن كان يؤمن بالله واليوم الآخر فليكرم ضيفه ومن كان يؤمن بالله واليوم الآخر فليقل خيرا أو ليصمت
রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি আল্লাহর প্রতি ও আখিরাতের উপর বিশ্বাস রাখে সে যেন তার প্রতিবেশীকে কষ্ট না দেয় এবং যে ব্যক্তি আল্লাহর প্রতি ও আখিরাতের উপর ঈমান রাখে সে যেন তার মেহমানকে সম্মান করে। আর যে ব্যক্তি আল্লাহর প্রতি ও আখিরাতের উপর বিশ্বাস রাখে সে যেন ভালো কথা বলে নতুবা চুপ থাকে। (বুখারী:৫৬৭২, মুসলিম:৪৭, বাইহাকী:১৬১৫৩, মুসতাদরাক, মু’জামুল আওসাত, সুনানে আবু দাউদ, ইবনে মাজাহ, তিরমিযী, আহমাদ, মুছান্নাফ সহ অন্যান্য)



সু-প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!
যেভাবে লুকিয়ে রাখা ইমেইলকে খুজে বের করে মেইল করা জায়েয হয় না,ঠিক সেভাবে এ প্রকারের চাকুরী করাও জায়েয হবে না।এবং যারা তাদের ইমেইলকে আপাতত লুকিয়ে রাখছে না,তবে অবশ্যই তারা বারংবার ইমেইলের দরুণ সংকোচতা প্রদর্শন করে থাকেন,তাদের ইমেইল খুজে বের করে মেসেজ করা যাবে না।তবে বেশী মেসেজ না হলে মাঝে মধ্যে দুয়েকটি মেইল করলে বা যারা বেশী মেইল পাওয়ার পরও উত্যক্ত হন না,তাদেরকে মেইল করা নাজায়েয হবে না।যেহেতু কে বিরক্ত হচ্ছেন আর কে হচ্ছেন না,সেটা বুঝা প্রায় মুশকিল।তাই হুকুম আম হবে।তথা সবার ক্ষেত্রেই হুকুম সমান।সুতরাং এরকম পেশা নাজায়েয হওয়ারই বেশী দাবী রাখে।(শেষ)

যদি বৈধ কোনো কারণে ইমেইলকে সংগ্রহ করা হয়,এবং কাউকে উত্যক্ত করা না হয়, তাহলে আপনি সংগ্রহ করতে পারেন।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...