0 votes
10 views
in হালাল ও হারাম (Halal & Haram) by (56 points)
আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারকাতুহ
মহিলারা মাথার চুল আচড়ানোর সময় যে চুল উঠে যায় বা চুল পড়ে সে চুলগুলা না ফেলে বিক্রির উদ্দেশ্যে না থেকে এমনিতে চুলগুলা পলিথিনে চুল জমানো জায়েজ কিনা?

1 Answer

0 votes
by (79,640 points)
জবাব
وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته 
بسم الله الرحمن الرحيم 


প্রথমেই আমরা দুটি মাসয়ালা জেনে নেইঃ

এক,
শরীয়তের বিধান মতে মহিলাদের চুল মাথায় থাকুক,বা ঝড়ে পড়া চুল হোক,কোনোক্রমেই গায়রে মাহরাম পুরুষ এর জন্য তাহা দেখা জায়েজ নেই। 
,
সুতরাং বাড়িতে গায়রে মাহরাম পুরুষ থাকলে   যথাসাধ্য চেষ্টা করতে হবে যে উক্ত চুল যেনো কোথাও পড়ে না থাকে।

ঝড়ে পড়া চুল মাটিতে দাফন করে দিতে হবে,বা কোনো কাপড় বা ব্যাগে করে দূরে কোথাও নিক্ষেপ করতে হবে,যাতে কোনো গায়রে মাহরাম পুরুষ এর নজর যেনো উক্ত চুলের দিকে না পড়ে।
,
শরীয়তের বিধান হলো যথাসম্ভব চেষ্টা করার পরেও যদি অগোচরে  কোনো চুল মাটিতে পড়ে যায়,বা উড়ে যায়,তাহলে সেই চুল যদি কোনো গায়রে মাহরাম পুরুষ দেখে,তাহলে এক্ষেত্রে উক্ত মহিলার কোনো গুনাহ হবেনা। 

ঐ ব্যক্তি যদি সেটা দেখে কুচিন্তা করে,তাহলে তার গুনাহ হবে।
,
আল্লাহ তা'আলা বলেন,

لاَ يُكَلِّفُ اللّهُ نَفْسًا إِلاَّ وُسْعَهَا لَهَا مَا كَسَبَتْ وَعَلَيْهَا مَا اكْتَسَبَتْ

আল্লাহ কাউকে তার সাধ্যাতীত কোন কাজের ভার দেন না, সে তাই পায় যা সে উপার্জন করে এবং তাই তার উপর বর্তায় যা সে করে।(সূরা বাকারা-১৮৬)
,
قال العلامة الحصکفي رحمه الله تعالی: "و کل عضو لا یجوز النظر إلیه قبل الانفصال، لا یجوز بعده و لا بعد الموت، کشعر عانة و شعر رأسها". ( الشامیة ٦ / ٣٧١ )

সারমর্মঃ যেই অঙ্গের দিকে পৃথক হওয়ার পূর্বে নজর (দৃষ্টি) দেওয়া জায়েজ নেই,সেই অঙ্গ গুলোর দিকে তাহা পৃথক হয়ে যাওয়ার পরও নজর দেওয়া জায়েজ নেই।
মারা যাওয়ার পরেও নজর দেওয়া জায়েজ নেই। 
যেমন মাথার চুল ইত্যাদি,,,,  

আরো জানুনঃ 

,
দুই,
চুল বিক্রি করা জায়েয হবে না।
বরং এগুলোকে দাফন করতে হবে।
এ সংক্রান্ত বিস্তারিত জানুনঃ 
,
★সুতরাং প্রশ্নে উল্লেখিত ছুরত তথা  মহিদের যেসব চুল পড়ে সে চুলগুলা না ফেলে বিক্রির উদ্দেশ্যে না থেকে এমনিতে চুলগুলা পলিথিনে চুল জমানো জায়েজ আছে।
,
তবে এই চুল যদি কোনো ভাবে গায়রে মাহরাম পুরুষের নজরে পড়ে, কোনো সময়ে তার দৃষ্টিগোচর হয়,  তাহলে এটি জায়েজ নেই।
,
তাই সতর্কতা অবলম্বন হিসেবে চুল গুলো একত্রিত করে মাটিতে দাফন করাই উচিত। 


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

------------------------
মুফতী ওলি উল্লাহ
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...