আইফতোয়াতে ওয়াসওয়াসা সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হবে না। ওয়াসওয়াসায় আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা ও করণীয় সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন

0 votes
36 views
in হালাল ও হারাম (Halal & Haram) by (10 points)
edited by
আসসালামু আলাইকুম
এই প্রশ্নের উত্তর আমাকে দিতেই হবে।কারন এতে আমার ইনকাম জড়িত।হারাম নাকি হালাল জানি না।প্লিজ উত্তর দিবেন।
একটা জব আছে সমাজকর্মীর। এই পদের নাম হলো "" ইউনিয়ন সমাজকর্মী"।এদের কাজ হলো বয়স্ক ভাতা,বিধবা,প্রতিবন্ধী ভাতা,হিজড়া ভাতা,মাদক পুর্নবাসন কেন্দ্রে কাজ,মা ও শিশু কেন্দ্রে কাজ,মানে ফিল্ডের যত সামাজিক কাজ ইত্যাদি ইত্যাদি সেবামূলক কাজ করা।এর মাঝে একটা হলো ঋন দেওয়াও আছে।সমস্যা এটা নিয়েই।
এটার একটা সার্ভিস চার্জও আছে।৫% ছিলো আগে যা মেবি এখন ১০% ।এটাকে কেউ বলে সুদমুক্ত কেউ বলে সুদযুক্ত।বিষয়টা হলো এমন(অনেকে বলে)
সুদমুক্ত কিন্তু সার্ভিসচার্জ নেওয়া হয় যা সরকার নেয় না নির্দিষ্ট গ্রামের সম্পদ হিসাবে জমা থাকে।
এখন প্রশ্ন হলো এ সার্ভিসচার্জ কি সুদ? তবে ঋনের শুরুতে ওরা লিখে দেয় এটা সুদমুক্ত ঋন।তো চার্জ তাহলে কি? উত্তর দিবেন।এ চাকরি করা কি হারাম হবে?সুদ মনে-প্রানে ঘৃনা করি আমি।এ চাকরিটা হলে কি আমার করা উচিত হবে?এই ঋন প্রদানের মাধ্যমে কি আমি সুদের সাক্ষী হিসেবে কেয়ামতের দিন উপস্থিত হবে?সুদের জন্য আমি ব্যাংকের চাকরি করছি না আর এখান এটাতেও সুদ কি না সে জন্য ভেবে ভেবে আমি নাজেহাল।এখানে অনেকগুলো কাজের মাঝে একটা কাজও যদি হারাম কাজ হয়ে থাকে তাহলে কি চাকরি জায়েজ?এতে কি গুনাহ হবে না?ইনকামে কি হারাম মিশ্রিত হবে?নাকি এটা হালাল ধরা হবে।

1 Answer

0 votes
by (746,320 points)
ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। 
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
আলহামদুলিল্লাহ!
আল্লাহ তা'আলা ঘোষণা দিয়েছেন,
ﻭَﻻَ ﺗَﻌَﺎﻭَﻧُﻮﺍْ ﻋَﻠَﻰ ﺍﻹِﺛْﻢِ ﻭَﺍﻟْﻌُﺪْﻭَﺍﻥِ ﻭَﺍﺗَّﻘُﻮﺍْ ﺍﻟﻠّﻪَ ﺇِﻥَّ ﺍﻟﻠّﻪَ ﺷَﺪِﻳﺪُ ﺍﻟْﻌِﻘَﺎﺏِ
সৎকর্ম ও খোদাভীতিতে একে অন্যের সাহায্য কর। পাপ ও সীমালঙ্ঘনের ব্যাপারে একে অন্যের সহায়তা করো না। আল্লাহকে ভয় কর। নিশ্চয় আল্লাহ তা’আলা কঠোর শাস্তিদাতা।(সূরা-মায়েদা-২) গোনাহের কাজে সহযোগিতা করার বিধান সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন- https://www.ifatwa.info/92143


সু-প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!
ইউনিয়ন সমাজকর্মী তথা বয়স্ক ভাতা,বিধবা,প্রতিবন্ধী ভাতা,হিজড়া ভাতা,মাদক পুর্নবাসন কেন্দ্রে কাজ,মা ও শিশু কেন্দ্রে কাজ, এগুলো তো জায়েয।তবে সুদি কাজে সহযোগিতা করা কখনো জায়েয হবে না। যেহেতু অফিসের অধিকাংশ কাজই জায়েয কাজ। তাই আপনি সমাজকর্মী হিসেবে কাজ করতে পারবেন। তবে দৈনিক কাজের যত পার্সেন্ট কাজ সুদি কাজের সহায়তায় ব্যয় হবে,সেই পরিমাণ টাকা অনুমান করে সদকাহ করে দিতে হবে।

বিঃদ্রঃ
ঋণ প্রদানের বিনিময়ে সার্ভিস চার্জ সুদের অন্তর্ভুক্ত হিসেবে বিবেচিত হবে।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন। এই প্রশ্ন ও উত্তরগুলো আমাদের ফেসবুকেও শেয়ার করা হবে। তাই প্রশ্ন করার সময় সুন্দর ও সাবলীল ভাষা ব্যবহার করুন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি স্থানীয় মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

Related questions

...