আইফতোয়াতে ওয়াসওয়াসা সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হবে না। ওয়াসওয়াসায় আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা ও করণীয় সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন

0 votes
52 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (7 points)
আসসালামু আলাইকুম। আমার এক বোন বৃহস্পতিবার অনাকাঙ্ক্ষিত একটি দুর্ঘটনার শিকার হয়। সকাল সারে ৬ টার দিকে রাস্তা দিয়ে যাবার সময় একটি অটোচালক অটো চালানো অবস্থায় পিছন থেকে তার হিজাব টেনে ধরার চেষ্টা করে। সে এই বিষয়টা নিয়ে অনেক চিন্তিত, তার সাখে এমন একটা ঘটনা ঘটে গেল। এই ঘটনাটা তার কাছে একটা দু:স্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে। আর সেই লুচ্চা অটো চালকের ইচ্ছা ছিল তার গায়ে হাত দেয়া। রাস্তায় কোনো মানুষ ছিল না বলে সে এই নিকৃষ্ট কাজ টা করে। এখন প্রশ্ন হলো,

১. এই ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত আকস্মিক ঘটনা থেকে আত্মরক্ষার জন্য সে কি নিজের সাথে কোন ছুরি কিংবা অন্য কোন অস্ত্র রাখতে পারবে? রাখলে কি গুনাহ হবে?

২. সে যদি নিজের সাথে আত্মরক্ষার জন্য কোন স্প্রে রাখে, তাহলে কি গুনাহ হবে?

1 Answer

0 votes
by (735,240 points)
ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। 
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
আলহামদুলিল্লাহ!
হযরত ইবনে আব্বাস রাযি থেকে বর্ণিত,তিনি রাসূলুল্লাহ সাঃ কে বলতে শুনেছেন,
 عَنْ ابْنِ عَبَّاسٍ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُمَا ، أَنَّهُ سَمِعَ النَّبِيَّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ ، يَقُولُ : " لَا يَخْلُوَنَّ رَجُلٌ بِامْرَأَةٍ ، وَلَا تُسَافِرَنَّ امْرَأَةٌ إِلَّا وَمَعَهَا مَحْرَمٌ ، فَقَامَ : رَجُلٌ ، فَقَالَ : يَا رَسُولَ اللَّهِ اكْتُتِبْتُ فِي غَزْوَةِ كَذَا وَكَذَا ، وَخَرَجَتِ امْرَأَتِي حَاجَّةً ، قَالَ : اذْهَبْ فَحُجَّ مَعَ امْرَأَتِكَ "  الكتب » صحيح البخاري » كِتَاب الْجِهَادِ وَالسِّيَرِ » بَاب مَنِ اكْتُتِبَ فِي جَيْشٍ فَخَرَجَتِ امْرَأَتُهُ 
আজনবী পুরুষ-মহিলার মাহরাম ব্যতীত পরস্পর খালওয়াত তথা নির্জনে সাক্ষাৎ করবে না।এক ব্যক্তি দাড়িয়ে বলল।অমুক জিহাদে আমার আমার নাম লিখা হয়েছে,অন্যদিকে আমার স্ত্রী হজ্বে যেতে চাচ্ছে।তখন রাসূলুল্লাহ সাঃ বললেন,তুমি তোমার স্ত্রীর সাথে হজ্বে যাও।(বুখারী-২৮০০) এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন- 212 

সু-প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!
ভোরবেলা একাকি রাস্তায় বের হওয়া এবং অটোতে করে যাওয়া কখনো উচিৎ হয়নি। আপনার ঐ বোন আর কখনো এভাবে ভোরবেলা একা যাবে না। আত্মরক্ষার জন্য সে মাহরাম সাথে রাখবে। মাহরামই সবচেয়ে বড় ও নিরাপদ আত্মরক্ষা। চাকু ইত্যাদি রাখা যাবে না। বিশেষ অসুবিধায় কখনো মাহরাম পাওয়া না গেলে তখন স্প্রে সাথে রাখা যাবে।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন। এই প্রশ্ন ও উত্তরগুলো আমাদের ফেসবুকেও শেয়ার করা হবে। তাই প্রশ্ন করার সময় সুন্দর ও সাবলীল ভাষা ব্যবহার করুন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি স্থানীয় মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

Related questions

...