আইফতোয়াতে ওয়াসওয়াসা সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হবে না। ওয়াসওয়াসায় আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা ও করণীয় সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন

0 votes
69 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (8 points)
reshown by
আসসালামু আলাইকুম।
আমি ইন্টার্ন ডক্টর(বিডিএস) ।ইন্টার্নী শেষ হতে এখনো অনেক সময় বাকি। আমি বিবাহিত, ২ টা বেবি আছে।
আমার হাজব্যান্ড আমাকে ডাক্তারি করতে দিতে চান না। ইন্টার্নীর পরে প্র্যাকটিস করতে দেবেন না এটা কনফার্ম। অনেকেই নানান ভাবে বুঝিয়েছেন।আমার বাবা মা ও চায় আমি ডাক্তারি করি।কিন্তু আমার হাজব্যান্ড  কোনভাবেই রাজি না।   বিভিন্নভাবে আমাকে বুঝিয়েছেন আমি মোটামুটি কনভিন্স  হয়ে গিয়েছিলাম ।
উনি ইন্টার্নী ও করতে দিতেন না। কিন্তু পরে বলেছেন ইন্টার্ন টা শেষ করতে পারব কিন্তু এর পরে কন্টিনিউ করতে দেবেন না। বলেছে হয় profession নয়তো তাকে চুজ করতে।আমি আর কথা বাড়াইনি।
কিন্তু আমি এই যে ইন্টার্ন করছি তা উনার পছন্দ হচ্ছে না।তাই আমি  ওনাকে জিজ্ঞেস করি তাহলে পারমিশন দিয়েছেন কেন? উত্তর :  'আল্লাহ না করুক যদি আমার কিছু হয় তাহলে তখন যেন তোমাকে আর আমার বাচ্চাদের কে জীবিকার জন্য  কষ্ট করতে না হয়।। (এটা বলে উনি আমার একজন নিকট আত্মীয়ের (বিধবা) কষ্টের কথা উদাহরন হিসেবে  বললেন)
আমাকে পারমিশন দেয়ার পিছনে ওনার এই নিয়ত শোনার পরে আমরা আর কিছু ভালো লাগছে না। এখন আমার কি করা উচিত।আমাকে পরামর্শ  দিয়ে সাহায্য করুন।

1 Answer

0 votes
by (725,040 points)
ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। 
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
আল্লাহ তা'আলা পুরুষ এবং নারী দু'টি ভিন্ন জাতিকে তৈরী করেছেন।এবং তাদের কাজকেও বন্টন করে দিয়েছেন।এভাবে যে, সাধারণত পুরুষ বাহিরে কাজে ব্যস্ত থাকবে এবং নারীরা ঘরের ভিতর সামাল দিবে।এবং সন্তানসন্ততি কে শিক্ষাদীক্ষা দেয়ার মত মহান কাজ আঞ্জাম দিবে।

নারীশ্রম কে ইসলাম নিরোৎসাহিত করেছে।তবে শরয়ী জরুরুতে অনুমোদনও দিয়েছে। নারীশ্রমের শরয়ী বিধান জানতে ভিজিট করুন করুন- 632

ফিৎনার আশংকা না থাকলে নারীদের জন্য একদিন একরাত (পায়ে হেটে)সফর পরিমাণ দূরত্ব তথা (৭৭÷৩=২৫.৬)২৫.৬ কিলোমিটার বা তার চেয়ে কম পরিমাণ জায়গা সফর করা মাহরাম ব্যতীত জায়েয আছে।তবে ফিৎনার আশংকা থাকলে জায়েয হবে না।
এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন- 212 

পর্দা করা ফরয।পর্দার তিনটি স্থর রয়েছে পর্যায়ক্রমে।প্রথম স্থর হল,ঘরে বসে পর্দা করা।
এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন- 572 

মানবিক প্রয়োজন,যার জন্য বের না হলেই নয়।যেমন মাহরাম না থাকাবস্থায় খাবার দাবার ও পোষাক ইত্যাদি ক্রয় বা চিকিৎসা কিংবা মাহরাম আত্মীয় স্বজনকে দেখা ইত্যাদির জন্য বাহিরে যাওয়া।সুতরাং বিনা প্রয়োজনে ঘরের বাহিরে না যাওয়াতে ফরয বিধান পালন হবে।

আল্লাহ তা'আলা বলেন,
وَقَرْنَ فِي بُيُوتِكُنَّ وَلَا تَبَرَّجْنَ تَبَرُّجَ الْجَاهِلِيَّةِ الْأُولَى وَأَقِمْنَ الصَّلَاةَ وَآتِينَ الزَّكَاةَ وَأَطِعْنَ اللَّهَ وَرَسُولَهُ إِنَّمَا يُرِيدُ اللَّهُ لِيُذْهِبَ عَنكُمُ الرِّجْسَ أَهْلَ الْبَيْتِ وَيُطَهِّرَكُمْ تَطْهِيرًا
তোমরা গৃহাভ্যন্তরে অবস্থান করবে-মূর্খতা যুগের অনুরূপ নিজেদেরকে প্রদর্শন করবে না। নামায কায়েম করবে, যাকাত প্রদান করবে এবং আল্লাহ ও তাঁর রসূলের আনুগত্য করবে। হে নবী পরিবারের সদস্যবর্গ। আল্লাহ কেবল চান তোমাদের থেকে অপবিত্রতা দূর করতে এবং তোমাদেরকে পূর্ণরূপে পূত-পবিত্র রাখতে।(সূরা আহযাব-৩৩)
এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন- 3247 

ফ্রি মিক্সিং পরিবেশ ব্যতীত পর্দা সম্মত হালাল যেকোনো চাকুরী করতে পারবে।তবে অবশ্যই পিতা বা স্বামীর অনুমতি সাপেক্ষ্যে।বিনা প্রয়োজনে চাকুরীতে না যাওয়াই উত্তম। যদি ফ্রি মিক্সিং চাকুরী করা ব্যতীত খোরাকীর অন্য কোনো ব্যবস্থা না থাকে,তাহলে ইস্তেগফারের সাথে রুখসত হবে। বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন- 3503

সুপ্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনি বোন!
যেহেতু আপনার জীবিকা নির্বাহে কোনো সমস্যা নাই, তাই ঘরের বাহিরে বর্তমান পরিস্থিতিতে চাকুরী করা আপনার জন্য জায়েয হবে না। হ্যা, পর্দা সম্মত চাকুরীর ব্যবস্থা হলে বা চাকুরীর বিশেষ প্রয়োজনিয়তা দেখা দিলে, তখন আপনার জন্য রুখসত থাকবে। আপনার স্বামীর মনোভাব প্রায়ই যথার্থ। সুতরাং স্বামীর সিদ্ধান্তকে সম্মান প্রদান করাই আপনার উচিৎ।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (8 points)
অমন নিয়ত রেখে ইন্টার্নী শেষ করা কি আমার জন্য ঠিক হবে?
by (725,040 points)
জ্বী, ইন্টার্নি শেষ করতে পারবেন।

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন। এই প্রশ্ন ও উত্তরগুলো আমাদের ফেসবুকেও শেয়ার করা হবে। তাই প্রশ্ন করার সময় সুন্দর ও সাবলীল ভাষা ব্যবহার করুন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি স্থানীয় মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

Related questions

...