0 votes
41 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (53 points)
আসসালামু আলাইকুম,
ছোটবেলা থেকে মিডিয়াতে শুনে আসছি ওসামা বিন লাদেন একজন জঙ্গী ছিলেন।
হক্কানী আলেমরাও তাকে কখনো সমর্থন করেন না।আবার কোনো কোনো আলেম তার ব্যাপারে চুপ থাকেন। কোনো ফতুয়া দেন না।
প্রশ্ন: তার বিষয়টি যদি পরিস্কার করতেন তাহলে ভালো হতো।

1 Answer

0 votes
by (72,320 points)
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
কারো সম্পর্কে মন্তব্য করার পূর্বে এই হাদীস লক্ষ্যণীয়।

হযরত আবু বাকরা রাযি থেকে বর্ণিত,
عَنْ أَبِي بَكْرَةَ رضي الله عنه أَنَّ رَجُلًا ذُكِرَ عِنْدَ النَّبِيِّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ فَأَثْنَى عَلَيْهِ رَجُلٌ خَيْرًا ، فَقَالَ النَّبِيُّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ : ( وَيْحَكَ قَطَعْتَ عُنُقَ صَاحِبِكَ - يَقُولُهُ مِرَارًا - إِنْ كَانَ أَحَدُكُمْ مَادِحًا لَا مَحَالَةَ فَلْيَقُلْ : أَحْسِبُ كَذَا وَكَذَا إِنْ كَانَ يُرَى أَنَّهُ كَذَلِكَ وَحَسِيبُهُ اللَّهُ ، وَلَا يُزَكِّي عَلَى اللَّهِ أَحَدًا )
একদিন নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর কাছে এক লোকের ব্যাপারে আলোচনা হয়। তখন অন্য এক লোক বলল, হে আল্লাহর রসূল! অমুক অমুক কাজের বিষয়ে রসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর পর তার চেয়ে উত্তম আর কোন লোক নেই। এ কথা শুনে রসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেনঃ তোমার ধ্বংস হোক, তুমি তো তোমার সঙ্গীর গর্দান কেটে ফেলেছ। তিনি এ কথাটি বার বার বললেন। অতঃপর বললেন, তোমাদের কারো যদি তার ভাইয়ের প্রশংসা করতেই হয় তবে সে যেন বলে অমুকের ব্যাপারে আমার ধারণা যে, সে এমন (বাস্তবে হলেই এ কথাটি বলতে পারবে), তবে আল্লাহর সম্মুখে আমি কাউকে দোষমুক্ত ঘোষণা করছি না (অর্থাৎ আমি আল্লাহর সামনে কাউকে পবিত্র করতে পারি না)। (সহীহ মুসলিম-শামেলা:৩০০০,ইসলামিক ফাউন্ডেশন ৭২৩১, ইসলামিক সেন্টার ৭২৮৪)(সহীহ বোখারী-৬০৬১)
বিস্তারিত জানুন-২০৫২

একজন দ্বীনদ্বার মানুষের বৈশিষ্ট্য হল,
পাঁচ ওয়াক্ত নামায পড়া এবং রোযা রাখা সহ যাবতীয় ফরয বিধান পালন করা।সামর্থ্যানুযায়ী সাহায্য সহযোগিতা করা।দুনিয়ার মুসলিম অমুসলিম সবাই তার থেকে নিরাপদ থাকা।জান মাল হেফাজত থাকা।রাসূলুল্লাহ সাঃ জীবন ও কর্মকে পুঙ্খানুপুঙ্খ অনুসরণ করা।

যদি লাদেন সাহেবের কাছে এই সমস্ত বৈশিষ্ট্য থেকে থাকে, তাহলে তো তিনি একজন দ্বীনদ্বার জান্নাতি মানুষ।আর যদি না থাকে,তাহলে তো তিনি দ্বীনদার নন।

নিজ আশ পাশের খবর চর্মচক্ষু দ্বারা অনুধাবন করা যায়।কিন্তু দূরের কারো সম্পর্কে মন্তব্য করতে সঠিক মাধ্যমে সঠিক খবর জেনেই তবে মন্তব্য করতে হয়।যেহেতু খবর সংগ্রহের সঠিক কোনো মাধ্যম আমাদের জানা নেই।তাই এ সম্পর্কে নির্দিষ্ট কোনো মন্তব্য করতে পারছি না আপাতত।উনি কেমন ছিলেন?
এ সম্পর্কে আল্লাহ-ই ভালো জানেন।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...