+1 vote
41 views
in হালাল ও হারাম (Halal & Haram) by (124 points)
১)আমার ঘরে আলমারিতে অনেক গুলো শামুকের তৈরি পাখির মুর্তির শো পিস আছে,যদিও আলমারি টা একটা কাপড় দিয়ে ঢাকা।এখন এইটা কী আমার জন্য হারাম হবে ঐসব শো পিস রাখা?  ঐ ঘরে নামায পরলে কী নামায হবে?

২)আমার ছোট ভাই(বয়স ২ বছরের কম) কী পুতুল জাতীয় খেলনা দিয়ে খেলতে পারবে?যেমনঃটুথব্রাশে পুতুলের ডিজাইন,পুতুলের মতো খেলনা,এইসব?

৩)১ নং ক্ষেত্রে যদি হারাম হয়,তাহলে আমার করণীয় কী ঐসব জিনিস নিয়ে?

1 Answer

0 votes
by (93,240 points)
বিসমিল্লাহির রাহিমানির রাহিম।
জবাবঃ-
(১)
ঘরে মুর্তি রাখা হারাম।চায় বড় হোক বা ছোট্ট হোক।তবে যদি এত ছোট্ট হয় যে জমিনে থাকলে দাড়ানো অবস্থা থেকে আকৃতিকে বুঝা যায় না তাহলে সেটা হারাম হবে না।ঠিক তেমনি ভাবে কোনো কিছু দ্বারা ঢাকা থাকলে সেটাও হারাম হবে না।

যেহেতু আপনি আলমারিতে ঢেকে রেখেছেন।তাই এটা ফিরিস্তাদের জন্য প্রতিবন্ধক হবে না।এবং নামাযের জন্যও প্রতিবন্ধক হবে না।তবে ঘরের মধ্যে রাখা আপনার জন্য উচিৎ না।যথাসম্ভব সেটা ভেঙ্গে ফেলাই তাকওয়ার দাবী। বিস্তারিত জানুন-2377

(২)
সারকথাঃ
অধিকাংশ উলামায়ে কেরাম বাচ্ছাদের জন্য ফটো-ভাস্কর্য কে বৈধ মনে করেন।এবং কিছুসংখ্যক উলামায়ে কেরাম হারাম মনে করেন।আল্লামা হালিমী রাহ বলেন,মুর্তির মত হলে নাজায়েয নতুবা জায়েযই হবে।আমি মনে করি হালিমী রাহ এর কথাই বিশুদ্ধ। (তুহফাতুল আহওয়াযি-৫/৩৫)

সু-প্রিয় পাঠকবর্গ!
কেউ বলেন জায়েয,আবার কেউ বলেন নাজায়েয।
সুতরাং উত্তম হল, খেলনার পুতুল থেকে সন্তানাদিকে বাঁচিয়ে রাখা।এবং এটাই তাকওয়ার সর্বাদিক নিকটবর্তী ও সার্বিক বিবেচনায় অধিক কল্যাণকর।
কেননা সন্দেহ মূলক জিনিষ থেকে বেঁচে থাকাই মু'মিন দের জন্য উচিৎ ও কাম্য।বিস্তারিত জানুন-669

উপরোক্ত কারণ ছাড়াও
প্রচারিত টম-জেরি চ্যানেল এবং পগো চ্যানেল সহ ইত্যাদি চ্যানেল সমূহ অযথা সময় নষ্ট এবং বিজাতীয় সংস্কৃতিতে ভরপুর থাকায় তা কখনো জায়েয হবে না।বিস্তারিত জানুন- 320

(৩)
এখনই এগুলোকে ভেঙ্গে ফেলে দেয়া।যাতে করে মুর্তির প্রতি মহব্বত সৃষ্টির সকল রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (124 points)
জাযাকাল্লাহ ওস্তাদ

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...