আইফতোয়াতে ওয়াসওয়াসা সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হবে না। ওয়াসওয়াসায় আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা ও করণীয় সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন

0 votes
292 views
in ব্যবসা ও চাকুরী (Business & Job) by (4 points)
আসসালামু আলাইকুম ।
প্রশ্ন : আমি হালাল টাকা দিয়ে হালাল ভাবে অনলাইনে হালাল পন্য বিক্রি করছি, কিন্তু যে কম্পিউটার দিয়ে ফেসবুক পেইজ চালাচ্ছি সেটি হালাল টাকায় কেনা নয়। এতে কি আমার ব্যবসা হারাম হয়ে যাবে?

ধন্যবাদ

1 Answer

0 votes
by (62,960 points)
edited by

 

بسم الله الرحمن الرحيم

জবাব,

https://www.ifatwa.info/524 নং ফাতাওয়ায় আমরা বলেছি যে,

ব্যবসা বানিজ্যবৈধ। আল্লাহ তা'আলা বলেন,

( وَأَحَلَّ اللَّهُ الْبَيْعَ وَحَرَّمَ الرِّبا )

আল্লাহ ব্যবসাকে হালাল করোছেন এবং সুদকে হারাম করেছেন।(সূরা বাকারা-২৭৫)

يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُواْ لاَ تَأْكُلُواْ أَمْوَالَكُمْ بَيْنَكُمْ بِالْبَاطِلِ إِلاَّ أَن تَكُونَ تِجَارَةً عَن تَرَاضٍ مِّنكُمْ وَلاَ تَقْتُلُواْ أَنفُسَكُمْ إِنَّ اللّهَ كَانَ بِكُمْ رَحِيمًا

হে ঈমানদারগণ! তোমরা একে অপরের সম্পদ অন্যায়ভাবে গ্রাস করো না। কেবলমাত্র তোমাদের পরস্পরের সম্মতিক্রমে যে ব্যবসা করা হয় তা বৈধ। আর তোমরা নিজেদের কাউকে হত্যা করো না। নিঃসন্দেহে আল্লাহ তা’আলা তোমাদের প্রতি দয়ালু।(সূরা নিসা-২৯)

ব্যবসা বানিজ্য পুরুষ-মহিলা সবার জন্য বৈধ।কেননা উপরোক্ত আয়াত সমূহে নারী পুরুষের কোনো পার্থক্য নেই।তবে নারীর জন্য শর্ত হলো,পর্দা রক্ষা করতে হবে।স্বামীর হক আদায় করতে হবে।হযরত যায়নাব রাযি ট্যানারির ব্যবসা করতে।এবং যা উপার্জন করতে, তার সিংহ ভাগ সদকাহ করে দিতেন।

আয়িশাহ্ (রাযি.) হতে বর্ণিত যে,

١٨٧٥ - «عن عائشة أن بعض أزواج النبي - صلى الله عليه وسلم - قلن للنبي - صلى الله عليه وسلم -: أينا أسرع بك لحوقا؟ قال: "أطولكن يدا "، فأخذوا قصبة يذرعونها، وكانت سودة أطولهن يدا، فعلمنا بعد أنما كان طول يدها الصدقة، وكانت أسرعنا لحوقا به زينب، وكانت تحب الصدقة» . رواه البخاري. وفي رواية مسلم، قالت: قال رسول الله - صلى الله عليه وسلم -: " «أسرعكن لحوقا بيأطولكن يدا ". قالت: وكانت يتطاولن أيتهن أطول يدا؟ قالت: فكانت أطولنا يدا زينب ; لأنها كانت تعمل بيدها وتتصدق» .

ভাবার্থ

কোন এক সহধর্মিনী নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম -কে বললেনঃআপনার মৃত্যুর পর আমাদের মধ্য হতে সবার পূর্বে কে আপনার সাথে মিলিত হবে? তিনি বললেনঃ তোমাদের মধ্যে যার হাত সবচেয়ে লম্বা। তাঁরা একটি বাঁশের কাঠির মাধ্যমে হাত মেপে দেখতে লাগলেন। সওদার হাত সকলের হাতের চেয়ে লম্বা বলে প্রমাণিত হল। পরে [সবার আগে যায়নাব (রাঃ)-এর মৃত্যু হলে] আমরা বুঝলাম হাতের দীর্ঘতার অর্থ দানশীলতা। তিনি [যায়নাব (রাঃ)] আমাদের মধ্যে সবার আগে তাঁর (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ) সাথে মিলিত হন এবং তিনি দান করতে ভালবাসতেন।(সহীহ বোখারী-১৪২০)মিশকাত-১৮৭৫

মোল্লা আলী কারী রাহ মিরকাত কিতাবের১৮৭৫ নং হাদীসের ব্যখ্যায় লিখেন,

 (تحب الصدقة) أي: إعطاءها، وكانت لها صناعة واكتساب معيشة باليد وهذا معنى آخر لليد، فأطولكن يدا بمعنى أفضلكن يدا؛ حيث إنها تأكل من كسب يدها وتتصدق بيدها من كد يدها

যায়নাব রাযি দান করতে ভালবাসতেন।যায়নাব রাযির পেশা ও উপার্জন ছিল,যায়নাব রাযি নিজ হাতের উপার্জন হতে খেতেন,এবং সদকাহ করতেন।

বিস্তারিত জানুন-https://www.ifatwa.info/524

প্রশ্নকারী প্রিয় দ্বীনী ভাই/বোন!

প্রশ্নেল্লিখিত ছুরতে যেহেতু আপনি হালাল টাকা দিয়ে হালাল পণ্য ক্রয় করে ব্যবসা করছেন বিধায় তা হারাম হবে না। বরং তা জয়েয। তবে হালাল ব্যবসায় হারাম টাকা দিয়ে ক্রয়কৃত কম্পিউটার দিয়ে ফেসবুক পেজ চালানো মোটও জায়েয নেই। বরং আপনার জন্য আবশ্যক হলো, হারাম টাকা যদি কোন ব্যক্তির হয় তাহলে মূল মালিক কে তা ফিরিয়ে দেওয়া। আর যদি মালিক পাওয়া না যায় তাহলে তা উক্ত টাকার মালিকের পক্ষ থেকে গরীব দুঃখী অসহায় মানুষদের কে সদকা করে দিবে।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী মুজিবুর রহমান
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)
by (62,960 points)
জ্বী আপনার প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হয়েছি

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন। এই প্রশ্ন ও উত্তরগুলো আমাদের ফেসবুকেও শেয়ার করা হবে। তাই প্রশ্ন করার সময় সুন্দর ও সাবলীল ভাষা ব্যবহার করুন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি স্থানীয় মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

Related questions

...