0 votes
64 views
in সালাত(Prayer) by (12 points)
১) মসজিদে নামাজের সময় ইমামের তিন রাকাত এর পর নামাজে অংশ নিই। কিন্তু শেষ রাকাতে ইমাম সাহু সিজদাহ দেয়ার আগে শুধু ডান পাশে সালাম ফিরিয়ে সাহু সিজদাহ দেয়, কিন্তু আমি সালাম ফিরাতে ভুলে গেছি এবং সালাম না ফিরিয়ে সাহু সিজদাহ দিই। পড়ে ইমাম সালাম ফিরানোর পর নিজে যখন বাকি ৩ রাকাত নামাজ পড়ি তখন সাহু সিজদাহ দিই একসাথে। আমার নামাজ কি হবে?

1 Answer

0 votes
by (502,120 points)

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
নামাযে ভুল হতে পারে।হযরত ইমরান ইবনে হুসাইন রাযি থেকে বর্ণিত
عَنْ عِمْرَانَ بْنِ حُصَيْنٍ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ: «أَنَّ رَسُولَ اللَّهِ - صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ - صَلَّى الْعَصْرَ وَسَلَّمَ فِي ثَلَاثِ رَكَعَاتٍ، ثُمَّ دَخَلَ مَنْزِلَهُ فَقَامَ إِلَيْهِ رَجُلٌ يُقَالُ لَهُ الْخِرْبَاقُ وَكَانَ فِي يَدَيْهِ طُولٌ، فَقَالَ يَا رَسُولَ اللَّهِ! فَذَكَرَ لَهُ صَنِيعَهُ وَخَرَجَ غَضْبَانَ يَجُرُّ رِدَاءَهُ حَتَّى انْتَهَى إِلَى النَّاسِ فَقَالَ: أَصَدَقَ هَذَا؟ قَالُوا نَعَمْ، فَصَلَّى رَكْعَةً ثُمَّ سَلَّمَ ثُمَّ سَجَدَ سَجْدَتَيْنِ ثُمَّ سَلَّمَ» . رَوَاهُ مُسْلِمٌ
রাসূলুল্লাহ সাঃ আছরের নামায পড়লেন।এবং তিন রা'কাত পড়ার পর সালাম ফিরিয়ে ফেললেন।অতঃপর ঘরে ঢুকে গেলেন।খিরবাক নামী একজন ব্যক্তি দাড়ালেন,যার হাত অনেক লম্বা ছিলো।তিনি রাসূলুল্লাহ সাঃ বিষয়টা অবগত করালেন।রাসূলুল্লাহ সাঃ ঐ ব্যক্তির চাদর ধরে মসজিদে এসে সবাইকে জিজ্ঞাসা করলেন,ঐ ব্যক্তি কি সত্য বলেছে?অতঃপর রাসূলুল্লাহ সাঃ আরো এক রা'কাত পড়লেন,এবং সালাম ফিরালেন,অতঃপর দুইটি সেজদায়ে সাহু দিয়ে আবার সালাম ফিরালেন।(মিরকাতুল মাফাতিহ-১০২১)
এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন-https://www.ifatwa.info/1837

সুপ্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনি ভাই/বোন!
সালাম না ফিরিয়ে ইমাম সাথে যে সাহু সিজদা আপনি দিয়েছেন, সেই সাহু সিজদা বিশুদ্ধ হয়েছে।কেননা সাহু সিজদা বিশুদ্ধ হওয়ার জন্য সালাম ফিরানো শর্ত নয়।

কেউ যদি দুই বার সাহু সিজদা দিয়ে দেয়,তাহলে তার নামায হয়ে যাবে।কেননা এক নামাযে যতই ভুল হোক না কেন।একটি সাহু সিজদাই ওয়াজিব হয়।কেউ সাহু সিজদা দেয়নি মনে করে ভুলে আবার সাহু সিজদা দিলে নামাযে সর্বমোট দুইটা ভুল হল।আর ফেকহের মুলনীতি হল,এক নামাযে যতই ভুল হোক না কেন,একটি মাত্র সিজদাই ওয়াজিব হবে।তবে ভবিষ্যতে সতর্ক হয়ে মনোযোগের সাথে নামায পড়ার চেষ্টা করবেন।(ফাতাওয়ায়ে মাহমুদিয়্যাহ-৭/৪৫৫)


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...