0 votes
68 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (34 points)
edited by

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহ        বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম 

(১)কোন মেঝের টাইলস্ এ যদি সরাসরি নাপাক না পড়ে পানি মিশ্রিত নাপাক পড়ে শুকিয়ে যায় তাহলে সেই মেঝের টাইলস্ পবিত্র হবে কী?শুকনো অবস্থায় সেই টাইলস্ এর উপর ভেজা কাপড় বা ভেজা পা পড়লে ভেজা কাপড় বা ভেজা পা নাপাক হয়ে যাবে কী?                                                                            (২)কোন কাপড়ে যদি প্রস্রাব বা পানি মিশ্রিত প্রস্রাব থাকে এবং সেই কাপড় যদি হাতে লেগে যায় এবং হাত যদি শুকিয়ে যায় এবং ঐ হাত দিয়ে কোন জিনিস ধরলে সেই জিনিস নাপাক হয়ে যাবে কী?যদি সেই জিনিসে প্রস্রাবের গন্ধ বা রং না পাওয়া যায়। (৩)কোন জিনিস বা কাপড় নাপাক হওয়ার সন্দেহ এবং কোন জিনিস বা কাপড় নাপাক হওয়ার প্রবল ধারণার মধ্যে পার্থক্য কী?                                                                                            (৪)গোসলখানায় প্রস্রাব করার পর যদি গোসলখানা না ধুয়ে দিয়ে যদি গোসলখানার এমন জায়গায় পা দেয়া হয় যেখানে প্রস্রাব ছিটকে পড়া সম্পর্কে যদি প্রবল ধারণা হয় তবে যদি নিশ্চত না দেখা যায় তাহলে পা নাপাক হবে কী?প্রস্রাব করার সময় পাশে যদি একটি বালতি থাকে এবং বালতির গায়ে যদি প্রস্রাব ছিটকে পড়ার পড়ার প্রবল ধারণা হয় কিন্তু যদি নিশ্চিত না দেখা যায় তাহলে বালতির গা নাপাক হবে কী?সেই বালতির গায়ে যদি পা লেগে যায় তাহলে পা নাপাক হবে কী?

1 Answer

0 votes
by (203,080 points)
edited by

ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। 

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।

জবাবঃ-

(قَوْلُهُ: إلَّا حَجَرًا خَشِنًا إلَخْ) فِي الْخَانِيَّةِ مَا نَصُّهُ: الْحَجَرُ إذَا أَصَابَتْهُ النَّجَاسَةُ، إنْ كَانَ حَجَرًا يَتَشَرَّبُ النَّجَاسَةَ كَحَجَرِ الرَّحَى يَكُونُ يُبْسُهُ طَهَارَةً، وَإِنْ كَانَ لَا يَتَشَرَّبُ لَا يَطْهُرُ إلَّا بِالْغَسْلِ. اهـ. وَمِثْلُهُ فِي الْبَحْرِ.

وَبَحَثَ فِيهِ فِي شَرْحِ الْمُنْيَةِ فَقَالَ هَذَا بِنَاءً عَلَى أَنَّ النَّصَّ الْوَارِدَ فِي الْأَرْضِ مَعْقُولُ الْمَعْنَى؛ لِأَنَّ الْأَرْضَ تَجْذِبُ النَّجَاسَةَ وَالْهَوَاءَ يُجَفِّفُهَا فَيُقَاسُ عَلَيْهِ مَا يُوجَدُ فِيهِ ذَلِكَ الْمَعْنَى الَّذِي هُوَ الِاجْتِذَابُ، وَلَكِنْ يَلْزَمُ مِنْهُ أَنْ يَطْهُرَ اللَّبِنُ وَالْآجُرُّ بِالْجَفَافِ وَذَهَابِ الْأَثَرِ وَإِنْ كَانَ مُنْفَصِلًا عَنْ الْأَرْضِ لِوُجُودِ التَّشَرُّبِ وَالِاجْتِذَابِ. اهـ. وَعَلَى هَذَا اسْتَظْهَرَ فِي الْحِلْيَةِ حَمْلَ مَا فِي الْخَانِيَّةِ عَلَى الْحَجَرِ الْمَفْرُوشِ دُونَ الْمَوْضُوعِ، وَهَذَا هُوَ الْمُتَبَادِرُ مِنْ عِبَارَةِ الشُّرُنْبُلَالِيَّةِ، لَكِنْ يَرُدُّ عَلَيْهِ أَنَّهُ لَا يَظْهَرُ فَرْقٌ حِينَئِذٍ بَيْنَ الْخَشِنِ وَغَيْرِهِ، فَالْأَوْلَى حَمْلُهُ عَلَى الْمُنْفَصِلِ كَمَا هُوَ الْمَفْهُومُ الْمُتَبَادِرُ مِنْ عِبَارَةِ الْخَانِيَّةِ وَالْبَحْرِ.

وَيُجَابُ عَمَّا بَحَثَهُ فِي شَرْحِ الْمُنْيَةِ بِأَنَّ اللَّبِنَ وَالْآجُرَّ قَدْ خَرَجَا بِالطَّبْخِ وَالصَّنْعَةِ عَنْ مَاهِيَّتِهمَا الْأَصْلِيَّةِ بِخِلَافِ الْحَجَرِ فَإِنَّهُ عَلَى أَصْلِ خِلْقَتِهِ فَأَشْبَهَ الْأَرْضَ بِأَصْلِهِ، وَأَشْبَهَ غَيْرَهَا بِانْفِصَالِهِ عَنْهَا، فَقُلْنَا إذَا كَانَ خَشِنًا فَهُوَ فِي حُكْمِ الْأَرْضِ؛ لِأَنَّهُ لَا يَتَشَرَّبُ النَّجَاسَةَ، وَإِنْ كَانَ أَمْلَسَ فَهُوَ فِي حُكْمِ غَيْرِهَا؛ لِأَنَّهُ لَا يَتَشَرَّبُ النَّجَاسَةَ - وَاَللَّهُ أَعْلَمُ -

«حاشية ابن عابدين = رد المحتار ط الحلبي» (1/ 312)

মর্মার্থ-

ফ্লোর যদি টাইলসবিহীন হয়, তাহলে নাপাকির ওপর পানি ঢেলে দিলে তা পবিত্র হয়ে যাবে। তবে পানি ঢালার পূর্বেই যদি শুকিয়ে যায়, তাহলেও পবিত্র হয়ে যাবে। কেননা তা মাটির হুকুমে। আর যদি ফ্লোর টাইলসবিশিষ্ট হয় এবং টাইলসগুলো আয়নার মতো সমান হয় এবং পানি চোষার ক্ষমতা না রাখে, তাহলে তা আয়নার হুকুমে। অর্থাৎ কোন কাপড় জাতীয় বস্তু দ্বারা মুছে ফেললে পবিত্র হয়ে যাবে। কিন্তু টাইলসে যদি মাটির মতো শোষণ ক্ষমতা থাকে, তাহলে তা মাটির হুকুমে। অর্থাৎ শুকানোর দ্বারা পবিত্র হয়ে যাবে। আর যদি শোষণ ক্ষমতা না থাকে এবং আয়নার মতো সমানও না হয়, তাহলে নাপাকি দূর হওয়া পর্যন্ত পানি দিয়ে তা ভালো ভাবে ধুতে হবে। (ই’লাউস সুনান: ১/৩৯২, হিদায়া: ১/৫৬, ফতহুল কদীর: ১/১৭৪, মাবসুতে সারখসী: ১/২০৬)


সু-প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন! 

( ১)

মেঝের টাইলস্ এ যদি সরাসরি নাপাক না পড়ে পানি মিশ্রিত নাপাক পড়ে শুকিয়ে যায় তাহলে সেই মেঝের টাইলস্ অপবিত্রই থাকবে। শুকনো অবস্থায় সেই টাইলস্ এর উপর ভেজা কাপড় বা ভেজা পা পড়লে ভেজা কাপড় বা ভেজা পা নাপাক হয়ে যাবে।


(২)

কোন কাপড়ে যদি প্রস্রাব বা পানি মিশ্রিত প্রস্রাব থাকে এবং সেই কাপড় যদি হাতে লেগে যায় এবং হাত যদি শুকিয়ে যায়, যদি ঐ হাত দিয়ে কোন জিনিস ধরা হয়, তাহলে সেই জিনিস নাপাক হবে না।



(৩) সন্দেহ এবং প্রবল ধারণার এই দুইটি কমন বিষয়ের দৃষ্টান্ত হল, সন্দেহ ৫/১০/২০ ভাগ। আর প্রবল ধারণা হল,৫০/৬০/৭০ ভাগ ইত্যাদি। 


(৪)

গোসলখানায় প্রস্রাব করার পর যদি গোসলখানা না ধুয়ে এমন জায়গায় পা দেয়া হয়, যেখানে প্রস্রাব ছিটকে পড়া সম্পর্কে যদি প্রবল ধারণা হয় তবে যদি নিশ্চত না দেখা যায়, তাহলে পা নাপাক হয়ে যাবে। প্রস্রাব করার সময় পাশে যদি একটি বালতি থাকে এবং বালতির গায়ে যদি প্রস্রাব ছিটকে পড়ার পড়ার প্রবল ধারণা হয় কিন্তু যদি নিশ্চিত না দেখা যায়, তাহলেও বালতির গা নাপাক হবে।সেই বালতির গায়ে যদি পা লেগে যায়, এবং বালতি ভিজা থাকে, তাহলে পা নাপাক হয়ে যাবে। 



(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (203,080 points)
সংযোজন ও সংশোধন করা হয়েছে। 

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...