আইফতোয়াতে ওয়াসওয়াসা সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হবে না। ওয়াসওয়াসায় আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা ও করণীয় সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন

0 votes
95 views
in ঈমান ও বিশ্বাস (Faith and Belief) by (8 points)
আস্সালামুআলাইকুম হুজুর ,,আমার কিছু বিষয় জানার ছিল

দাত দিয়ে নখ কাটলে দারিদ্র্যতা যায়না,ডান/চোখ লাফানো শুভ/অশুভ, বাসন একটার সাথে একটার লেগে শব্দ হলে,সেই বাড়িতে ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকে,দুধ উধলে পরলেও একই বিষয়, ঝাড়ু দিয়ে ময়লা দরজার সামনে/সাইডে রাখলে ঘরে ফেরেস্তা আসেনা,,জুতা উল্টানো (উবর হয়ে) থাকলে বাড়িতে অশান্তি হয়, দরজার যে উচু যায়গাটা থাকে (ধারি) এখানে বসা খারাপ,এগুলো সবই তো শিরক না!?

২)সালাত আদায় করার সময় মাঝে মাঝে অনেক রকমের দুনিয়াবী চিন্তা চলে আসে তাই তখন দোআ/সূরা গুলো জোরে জোড়ে পড়ি যেন তা আমার কানে আসে ,এবং মনোযোগ এখানেই থাকে ,এভাবে জোড়ে জোরে আওয়াজ করে সূরা গুলো পড়লে কি সালাত হবেনা ?

৩)ঝর্ণা /শাওয়ারে গোসুলেরর সময় আগে গোসুলের নিয়ত করে কব্জি পর্যন্ত হাত ধুয়ে ,নাকে পানী দিয়ে ,কুলি করে ,মাথা মাসেহ করে ঝর্ণায় ভিজে নিলেই কি গোসুল হবে...মানে ঝর্ণা ছাড়া অবস্থায় ভিজতে ভিজতেই এই কাজ গুলো করা হলে কি পবিত্র গোসুল হবে ? এবার আবারো ভিজতে ভিজতেই যদি এভাবেই ওযু করে নেই ,,,ওযু কি হবে? নাকি শাওয়ার থামিয়ে আলাদা ভাবে কল এর পানিতে ওযু করতে হবে ?

৪)আমরা তো সেজদায় আল্লাহর আরো নিকটে চলে যাই ,তো তখন কি আল্লাহর সাথে কিছু কথা বলা/দুআ করা যাবে ? অনেক কিছু বলতে ইচ্ছে করে কিন্তু এভাবে দুআ শেষে দেখা যায় যে মাঝে মাঝে ভুলে যাই যে কয় রাকাত সালাত হলো /কয়বার সেজদা হলো,,,,সালাত আদায় শুরু করলেই শুধু কখন দুআ করার সময় আসবে আর কখন আল্লাহকে সব বলবো এই আকাঙ্কায় থাকি ,অনেকসময় সালাতের নিয়ত করে সূরা ফাতিহা শুরু করলেই আর কান্না /আবেগ আটকে রাখতে পারিনা ,কান্না হয়ে যায় না চাইতেও ,,,এভাবে কি সালাত ভঙ্গ হয়ে যাবে ?

1 Answer

0 votes
by (681,200 points)
ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। 
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
আলহামদুলিল্লাহ!
(১)
প্রশ্নে বর্ণিত এই বিশ্বাসগুলো ভ্রান্ত এবং এগুলো শিরকি আকিদা।
(২)
আপনি ফজর,মাগরিব,এশা উচ্ছস্বরে এমনকি সুউচ্ছস্বরে তিলাওয়াত করতে পারবেন।তবে জোহর,আসরের নামাযে নিজে শ্রবণ করা যায়,বা নিকটবর্তী ব্যক্তি শুনে, এরচেয়ে বেশী উচ্ছস্বরে তিলাওয়াত করতে পারবেন না।এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন- https://www.ifatwa.info/2570


(৩)
ফরয গোসল আদায়ের জন্য অজু জরুরী নয়। বরং সমস্ত শরীরে কোনো ভাবে পানি পৌছে গেলেই গোসলের ফরয আদায় হয়ে যাবে। এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন- https://www.ifatwa.info/5183

(৪)
যদি কেউ নামাযে ঐ সমস্ত দু'আ দ্বারা দু'আ করে যা নবীজী সাঃ থেকে নামাযে বর্ণিত,বা কোরআনে কারীমে এসেছে,অথবা হাদীসের কোনো কিতাবে এসেছে,তাহলে উক্ত দু'আ করা বৈধ রয়েছে এবং এমন দু'আর কারণে তার নামায ফাসেদ হবে না। কিন্তু যদি উক্ত দু'আ কোরআন বা হাদীসের কোথাও না আসে।এমতাবস্তায় যদি সে এমন (বাক্যসমূহ দ্বারা) দু'আ করে যা বান্দার কাছে চাওয়া যায়,অসম্ভব নয়, তথা বন্দা সেই হাজত পূর্ণ করার সামর্থ্য রাখে,তাহলে এমতাবস্থায় উক্ত দু'আ করা যাবে না।করলে নামায ফাসেদ হয়ে যাবে। কিন্তু যদি এমন বাক্যাবলী দ্বারা দু'আ করে যা বান্দার কাছে চাওয়া অসম্ভব(যেমন হে আল্লাহ আমার নাতীর হায়াত বাড়িয়ে দাও ইত্যাদি)অর্থীৎ যা বন্দার সামর্থ্যর বাইরে,তাহলে এমতাবস্থায় উক্ত দু'আ (কোরআন হাদীসে বর্ণিত না থাকা সত্বেও) করা যাবে।নামায ফাসিদ হবে না।(ফাতাওয়ায়ে ক্বাযিখান-প্রথম ৬৮)

আরবী ব্যতীত অন্যান্য ভাষায় নামাযে দু'আ করা মাকরুহে তাহরিমী(আহসানুল ফাতাওয়া-৩/৪৩২)
আরো........ 
এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন- https://www.ifatwa.info/185


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (681,200 points)
সংযোজন ও সংশোধন করা হয়েছে।

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন। এই প্রশ্ন ও উত্তরগুলো আমাদের ফেসবুকেও শেয়ার করা হবে। তাই প্রশ্ন করার সময় সুন্দর ও সাবলীল ভাষা ব্যবহার করুন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি স্থানীয় মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

Related questions

...