0 votes
17 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (3 points)
স্বপ্নে দেখি আমি নানুর বাড়িতে, আমার এক বান্ধবী আর আমি  খাটে ছিলাম পরে আমি দরজা খুলে বের হতে যাচ্ছিলাম দেখি দরজার মাঝখান থেকে  অনেক সুন্দর একটা গাছ উঠছে, এতো বেশি সুন্দর ছিলো, এখন বের হতে যাচ্ছিলাম ঠিক তখনি দেখি ঠিক গাছের কালারের একটা সাপ গাছে পেচিয়ে আছে, আর সাপটা আমার ঘাড়ে একটা কামড় দেয়, এই স্বপ্নের কি কোন ব্যাখ্যা আছে? স্বপ্নটা আমি ফজরের আগে দেখেছিলাম।

দ্বিতীয় আরেকটা কথা জানতে চাই সেটা হলো - নাম জানে না, চিনেনা এমন কোন ব্যাক্তির কথা কি আমি আমার কাছের মানুষ বা বান্ধবীদের কাছে বললে গীবত হবে?  অনেক সময় দেখা ঈমানের হালত বুজানোর জন্য বা খারাপ লাগা বুজানোর জন্য আমি নাম না ধরে বললাম একজনের এরকম একটা কথা বলছে যেটা আমার খারাপ লাগছে যার কাছে বললাম সে ও জানে না কার কথা বললাম,  বা কারো ঘটনা বল্লাম অন্য আরেকজনের কাছে যে ওই ব্যাক্তিকে চিনে না এটা কি গীবত হবে?

1 Answer

0 votes
by (502,120 points)
edited by
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
ইবনে সিরিন রাহ বলেন,
فإن رأى حية تمشي خلفه فإنّ عدوه يريد أن يمكر به فإن مشت بين يديه أو دارت حوله فإنّهم أعداء يخالطونه
যদি কেউ স্বপ্নে সাপ দেখে যে,তার পিছু পিছু ছুটছে,তাহলে এর অর্থ হল,ঐ ব্যক্তির শত্রুরা তার সাথে শত্রুতা করা জন্য চেষ্টা করতেছে।আর যদি কেউ দেখে যে তার হাতের সামনে বা তার আশপাশে সাপ ঘুর ঘুর করতেছে,তাহলে এর অর্থ হলো,ঐ ব্যক্তির শুত্রুরা তার পাশেই রয়েছে ঘনিষ্টজনদের মধ্যে। (তাফসিরুল আহলাম-ইবনে সিরান-২/৪)

সু-প্রিয় পাঠকবর্গ! ও প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!
সাপ যেহেতু আপনাকে কামড় দিয়েই দিয়েছে, তাহলে এর অর্থ হল, শত্রু আপনার ক্ষতি করে ফেলেছে, সুতরাং 
আপনার প্রতি নসিহা হল,আপনি ফরয ওয়াজিব বিধানকে গুরুত্বসহকারে পালন করবেন। সামর্থ্যানুযায়ী গরীব-মিসকিনকে কিছু দান করবেন।
আর নিম্নোক্ত দুআ পড়বেন।আল্লাহুম্মা ইন্না নাজআলুকা ফি নুহুরিহিম,ওয়া নাউযুবিকা মিন শুরুরিহিম।অাল্লাহ-ই ভালো জানেন।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (502,120 points)
সংযোজন ও সংশোধন করা হয়েছে।

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...