0 votes
33 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (1 point)
আসসালামু আলায়কুম ওয়ারাহমাতু আল্লাহ শেয়খ আমি একজন অবিবাহিত নারী।আজকে ফযরের নামাজের পর যখন ঘুমিয়েছি তখন স্বপ্নটি দেখেছি ।

 স্বপ্নে দেখলাম আমি আমার বড় আপু (বাস্তবে আমার এই বোন তালাক প্রাপ্ত এবং তিনি একজন কুরআন আর আরাবিক ভাষার শিক্ষিকা উনার মেয়ে ও আছে ২ জনই আমাদের সাথে থাকে ) আর আমার মা আমরা ৩ জন একটা কাপড়ের দোখানে গেলাম সেই দোকানে ব্যাগ ও বিক্রি করে ।আমার বোন উনার গায়ে একটি জামা পড়ে আয়নায়  দেখতেছিল মানাচ্ছে কিনা আমি দেখার পর আমারও পছন্দ হলো আপু গায়ে দিয়ে দেখার পর আমিও দিয়ে দেখলাম আমাকে মানায়সে এবং কাপড়টি সুন্দর কিন্তু গায়ে দিয়ে বুঝতে পারলাম কাপড়টি আরাম দায়ক নয় কাপড়ের গুণ ও তেমন ভালো নয় তাই আমরা কেউই নেয়নি । পরে মা আমার জন্য কয় একটি কাপড় আনল গায়ে দিয়ে দেখার জন্য যাতে কোনটা মানায় ওটা কিনে দিবে আমাকে পরে এর মধ্যে একটি সাদা লম্বা সুন্দর জামা  এবং আমাকে পড়িয়ে  দিচ্ছে হঠাৎ অপরিচিত এক কাস্টমার লোক আমাকে ও জামাটি পড়তে সাহায্য করছে তখন সাথে সাথে আমি সড়ে গিয়ে মায়ের দিকে হলাম যাতে শুধু মায়ের সাহায্য নি আর ওই অপরিচিত নন মাহরামের যেন সাহায্য না নি ।পরে লোকটি চলে গেলে।তারপর মা পড়িয়ে দেওয়ার পর আয়নাই দেখি আমাকে অনেক মানিয়েছে আর কাপড়টি অনেক সুন্দর লম্বা গায়ে একদম ফিট হল কাপড়ের গুণও ভালো আমিও খুশি হেয়েছি তারপর সিদ্ধান্ত হলো এই জামাটা কেনা হবে আমার জন্য আর কাপড়টি মা উনার কাছে রাখল আর কাপড়টির দাম ছিল ৯৫ সৌদি  রিয়াল।হঠাৎ কিছুখন পর দেখলাম আমার গায়ে বুরকা আর মা নিকাব দিয়ে বললো নিকাবটি পড় আমি হাতে নিলাম আর বললাম নিকাবের ত দরকার নেই (স্বপ্নে এই কথা বলার কারণ হলো স্বপ্নে  আমাকে ওই দোকানে অনেক মহিলারা আমার খুলা মুখ দেখেছে যেহেতু আগে গায়ে বুরকা ছিলনা নরমাল কাপড় ছিল ) তারপর তাও হাতে নিকাবটি নিয়ে রাখলাম আর আমি পড়ার জন্য নির্দিষট জায়গা খুজছি কারণ ওই দোকানের কিছু মহিলা দেখবে সেটা আমি চায় না ।দোকানে অনেক কাস্টমার মহিলা সবাই কেনাকাটার জন্য এসেছে পুরুষ ও ছিল কিন্ত কয় একজন। তারপর ওই দোকানে কিছু সুন্দর ব্যাগ ও ছিল রংঙিন সেখান থেকে একটা কেনার উদ্দেশ্যে দেখতেছি।

 শেয়খ এটাই ছিল আমার স্বপ্ন ।ইনশা আল্লাহ আশা করি ভালো ব্যাখ্যা আসবে।
by
শেয়খ মাঝকান দিয়ে কিছু স্বপ্ন ভুলে গিয়েছি এখন মনে পড়লো তা হলো যখন সাদা জামাটি গায়ে দিয়েছিলাম তখন মা আমার সৌন্দর্য দেখে বললো  উনি আমাকে একজন কালো লোকের সাথে বিয়ে দিবে যার মুদির দোকান আছে (আরাবিতে যাকে বিকালা বলে যেখানে খাবার দাবার বিক্রি করা হয় )। তারপর সাদা জামাটি কিনে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হল আর কাপড়টির দাম ছিল ৯৫ সৌদি রিয়াল।আর মা কাপড়টি উনার কাছে রাখলো কিনে দিবে আমার জন্য তাই ।পরে আমাদের পাশে কয় একজন শেমলা বর্নের মহিলা ছিল ।(তারপর স্বপ্নটি হঠাৎ কিছুখন পর দেখলাম আমার গায়ে বুরকা থেকে স্বপ্নটি শুরু) 

1 Answer

0 votes
by (469,840 points)
edited by
ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। 
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
আলহামদুলিল্লাহ!
স্বপ্ন ও তার ব্যাখ্যা বিশেষজ্ঞ ইমাম মুহাম্মাদ ইবনে সীরিন রহ. বলেছেন :
 الرؤيا ثلاث : حديث النفس ، وتخويف الشيطان ، وبشرى من الله . (رواه البخاري في التعبير) 
স্বপ্ন তিন ধরনের হয়ে থাকে। মনের কল্পনা ও অভিজ্ঞতা। শয়তানের ভয় প্রদর্শন ও কুমন্ত্রণা ও আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে সুসংবাদ। (বর্ণনায় : বুখারি)

হযরত আবু রাযিন আল-উক্বাইলী রাঃ বলেন নবী কারীম সাঃ বলেছেন
، عَنْ أَبِي رَزِينٍ العُقَيْلِيِّ، قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «رُؤْيَا المُؤْمِنِ جُزْءٌ مِنْ أَرْبَعِينَ جُزْءًا مِنَ النُّبُوَّةِ، وَهِيَ عَلَى رِجْلِ طَائِرٍ مَا لَمْ يَتَحَدَّثْ بِهَا، فَإِذَا تَحَدَّثَ بِهَا سَقَطَتْ». 
মু'মিনের স্বপ্ন হচ্ছে নবুওতের চল্লিশভাগের এক ভাগ(অর্থাৎ তা সত্যরূপ পরিনত হয়ে থাকে),যে স্বপ্ন দেখেছে স্বপ্নটা তার উপর ঘুর্ণায়মান থাকে যতক্ষণ না কারো কাছে ব্যক্ত করে,অতঃপর যখন সে কারো কাছে ব্যক্ত করে (এবংঐ ব্যক্তি এর কোনো ব্যখ্যা প্রদান করে) তখন ঐ ব্যখ্যা অনুযায়ীই স্বপ্ন বাস্তবায়িত হয়।(তিরমিযি হাদীস নং ২২৭৮)


সুপ্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনি ভাই/বোন!
স্বপ্নে পোষাক দেখা বা ক্রয় করতে দেখার ভালো মন্দ অনেক ব্যখ্যা হতে পারে। এর মধ্য থেকে উত্তম ব্যখ্যাটাই বলছি, 
এর তাৎপর্য হল, আপনার জীবন সকল দিক দিয়ে কল্যাণকর হবে।আল্লাহ কবুল করুক।আমীন।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (469,840 points)
সংযোজন ও সংশোধন করা হয়েছে।

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...