0 votes
29 views
in সালাত(Prayer) by (13 points)
আসসালামু আলাইকুম।
আমি স্টুডেন্ট পড়াই। তো যোহরের নামায পড়ে যাই, আসরের আর মাগরিবের নামায সেই বাসাতেই পড়ি। কিন্তু একাগ্রচিত্তে আদায় করতে পারি না। এক্ষেত্রে যোহরের সালাতের সাথে কি আসরের আদায় করে নেওয়া যাবে? প্রায়ই মাগরিবের সুন্নাহ মিস হয়ে যায় এই টিউশনি থাকি। ফরজ পড়েই বের হয়ে যাই৷ সেক্ষেত্রে কি করব?

কিছুদিন আগে স্বপ্ন দেখি আমার বান্ধবী মারা গেছে, স্পষ্ট সেই মুখ দেখি। ঘুমের মধ্যেই নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছিলো এবং হঠাৎ লাফিয়ে উঠি। দেখি ফজরের ওয়াক্ত। এমন স্বপ্ন দেখে করণীয় কি?

1 Answer

0 votes
by (469,840 points)
edited by


ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু।
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
আলহামদুলিল্লাহ!
ﻻ ﺟﻤﻊ ﺑﻴﻦ ﻓﺮﺿﻴﻦ ﻓﻲ ﻭﻗﺖ . ﻭﻻ ﻳﺠﻮﺯ ﺇﻻ ﺍﻟﺠﻤﻊ ﺍﻟﺼﻮﺭﻱ ﺑﺘﺄﺧﻴﺮ ﺍﻟﻈﻬﺮ ﺇﻟﻰ ﺁﺧﺮ ﻭﻗﺘﻬﺎ , ﺛﻢ ﺃﺩﺍﺀ ﺻﻼﺓ ﺍﻟﻌﺼﺮ ﻓﻲ ﺃﻭﻝ ﻭﻗﺘﻬﺎ , ﻣﺎ ﻋﺪﺍ ﺍﻟﺠﻤﻊ ﺑﻌﺮﻓﺔ ﻭﻣﺰﺩﻟﻔﺔ
আরাফা এবং মুযদালিফা ব্যতীত আর কোথাও দুই নামাযকে একত্রিকরণের বিধান নেই।তবে বাহ্যত দু'টি নামাযকে এভাবে একত্র করে পড়া যেতে পারে যে,যোহরের নামাযকে একেবারে শেষ ওয়াক্তে এবং আছরের নামাযকে একেবারে প্রথম ওয়াক্তে এমনভাবে পড়া যে, দৃশ্যত দু'টি নামাযকে একতত্রিত বুঝা যাবে, যদিও বাস্তবতায় প্রত্যেক নামাযকে তার ওয়াক্তে পড়া হচ্ছে।(আদ্দুর্রুল মুখতার-১/৩৮১)শেষ)এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন-https://www.ifatwa.info/827

সুপ্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনি ভাই/বোন!
দুই নামাযকে একত্রিত করে পড়তে পারবেন না।বরং জোহরকে জোহরের ওয়াক্তে এবং আছরকে আছরের ওয়াক্তেই আদায় করতে হবে। একাগ্রতা আসুক বা নাই আসুক, নামাযকে নামাযের ওয়াক্তেই পড়তে হবে।এবং একাগ্রতাকে নিয়ে আসার যথেষ্ট চেষ্টা করতে হবে।

আপনার বান্ধবী মারা গেছেন, এর অর্থ হল, আপনার বান্ধবী সম্পূর্ণই বদলে যাবেন। তার জীবনের চলাফেরা, আদব আখলাক্ব সবকিছুই বদলে যাবে।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

by (469,840 points)
সংযোজন ও সংশোধন করা হয়েছে।

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...