0 votes
85 views
in ঈমান ও বিশ্বাস (Faith and Belief) by (5 points)
শিয়া ইমামের পেছনে নামাজ পড়া, তাদের সাথে কোরআন পাঠ সহ অন্যান্য ইবাদতে শামীল হওয়া,  শিয়াদের সাথে বৈবাহিক/সামাজিক সম্পর্ক স্থাপন তথা তাদেরকে বেহেশতে যেতে পারে এমন মুসলমান বলা যাবে কিনা? আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের সাথে তাদের সম্পর্কের রুপরেখা কিরকম  হবে? তাদেরকে মুসলিম বিশ্বের অন্তর্ভুক্ত হিসেবে কি গণ্য করা যাবে?

1 Answer

0 votes
by (41,600 points)
বিসমিহি তা'আলা

জবাবঃ-
কিছু শিয়াদের আকিদা মারাত্বক পর্যায়ের।যেমন (১)বর্তমানে আমাদের সামনে যে কুরআনে কারীম রয়েছে,সেটা বিকৃত।
(২)হযরত আবু বকর উমর কাফির।
(৩) হযরত আযেশা রাযি এর ইফকের ঘটনা বাস্তব সম্মত।

এমন সব আকিদা গ্রহণ কারী অবশ্যই কাফির।
এতে সাথে কোনো রকম সম্পর্ক রক্ষা করা যাবে না।

এবং তাদের কিছু লোকের  আকিদা আমাদের মতই।তবে তারা হযরত আলী রাযি সম্পর্কে বেশী মহব্বতের ইজহার করে থাকে,এমন আকিদা লোকজন কে কাফির বলা যাবে না।বরং তারা আমাদেরই মতন।তাদের সাথে সকল প্রকার যোগাযোগ রক্ষা করা যাবে।

(সংকলিত)
বর্তমান সময়ের যে শিয়া রা ইরানে আছেন,তাদের সম্পর্কে বলা যায় যে,ইরানের ধর্মীয় নেতা রুহুল্লাহ খোমেনি "ইসনা আশারিয়া" সম্প্রদায়েরর।
এদেরকে এক সময় শিয়াদের একটি সম্প্রদায়  "যায়দিয়া" (ইয়েমেনি হুথি) রা কাফের বলে  আখ্যায়িত করেছিল। । 

ইরানের সুপ্রিম লিডার ইমাম আয়াতুল্লাহ রূহুল্লাহ খোমিনী লিখিত কিছু গ্রন্থ থেকে আমরা তাদের আকিদা জানার চেষ্টা করব-
১) সৃষ্টি জগতের প্রতিটি কণার উপর ইমামগণের আধিপত্য রয়েছে । [আল হুকূমাতুল ইসলামিয়্যাহ পৃঃ ৫২]
২) ইমাম গণের মর্যাদা নৈকট্যশীল ফেরেশতা,নবী, ও রাসূলগণেরও উর্ধে ![আল হুকূমাতুল ইসলামিয়্যাহ পৃঃ ৫২]
৩) ইমামগণের শিক্ষা কূরআনের বিধানাবলী ও শিক্ষার মতই চিরস্থায়ী এবং অবশ্য পালনীয়। [আল হুকূমাতূল ইসলামীয়া পৃঃ ১১৩]
৪) আবু বকর ও উমর দিল থেকে ঈমান আনেনি বরং শুধু নেতৃত্বের লোভে বাহ্যিক ভাবে ইসলাম কবুল করেছিল এবং রাসূলে খোদা (সাঃ) এরর সাথে নিজেদেরকে লাগিয়ে রেখেছিল। [কাশফুল আসরার]
৫) আমাদের ইমামগণ এ জগৎ সৃষ্টির পূর্বে নূর ও তাজ্জালীর আকৃতিতে ছিলেন,যা আল্লাহ'র আরশকে বেষ্টন করে রেখেছিল,তাদের মর্যাদা ও নৈকট্যপ্রাপ্তির কথা আল্লাহ তায়ালা ছাড়া কেউ জানেনা। [আল বিলায়াতুত তাকবীনিয়্যাহ শিরোনামে 'আল হুকূমাতুল ইসলামীয়াহ' গ্রন্থে:পৃঃ৫২]
৬) আমাদের ইমামগণ ভূল ও গাফলত হতে মুক্ত-পবিত্র। [আল হিকমাতুল ইসলামিয়্যাহ পৃঃ৯১]

প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই!
উসূলে ফিকহ ও আকাঈদ হিসেবে বর্তমান শিয়াদের সাথে কোনো রকম সম্পর্ক রাখা যাবে না।কেননা তারা কাফির।আল্লাহ-ই ভালো জানেন।
উত্তর লিখনে
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ, IOM.


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...