+1 vote
78 views
in কুরবানী (Slaughtering) by (12 points)
আমাদের বাড়িতে একটি এড়ে গরু আছে যেটি এক অন্ডকোষ বিশিষ্ট জন্মগতভাবেই। আমি যতদূর জানি ত্রুটিযুক্ত গরু দিয়ে কুরবানী হয় না। এখন এই ত্রুটি কি জন্মের পরের নাক যে কোন ত্রুটি হলেই হল? উল্লেখ্য গরুটির অন্য কোন সমস্যা নেয়। বয়স দুই বছর।

1 Answer

0 votes
by (6,480 points)

 

   بسم الله الرحمن الرحيم

জবাব,

আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন

لن تنالوا البر حتي تنفقوا مماتحبون وما تنفقوا من شيء فان الله به عليم

অর্থাৎ )হে মুসলিমগণ( তোমরা কখনোও পুর্ণ সাওয়াব পাবে না, যে পর্যন্ত না নিজের (অতিশয়) প্রিয় বস্তু (আল্লাহর রাস্তায়) ব্যয় না করবে। আর যা কিছু (সাধারন ভাবে) ব্যয় করবে তাও আল্লাহ খুব জানেন। (সূরা আল ইমরান আয়াত ৯২)

কোরবানির পশু মোটাতাজা হওয়া উত্তম।এর উপায় হল, কোরবানির সময় আসার কিছুদিন পূর্বে ক্রয় করে ভালোভাবে যত্ন এবং খাওয়া-দাওয়া করাবে। এতে অল্প মূল্যের পশু ক্রয় করলেও মোটাতাজা দিয়ে কুরবানী করার সওয়াব পাওয়া যাবে। আর দীর্ঘদিন নিজের লালন-পালনে থাকলে পশুর প্রতি মায়া আসবে। এতে প্রিয় বস্তু কোরবানি করার সওয়াবও পাওয়া যাবে

কোরবানির পশু মোটা তাজা সুন্দর ও শিংযুক্ত হওয়া উত্তম।বর্ণিত আছে ,

عن ابي الأسود الانصاري،عن الله عن جده،عن النبي صلي الله عليه وسلم إن أحب الضحايا الي الله اغلاهاواسمنها

নবী সা এরশাদ করেন, কুরবানীর পশু বেশি মূল্যবান ও মোটাতাজা হওয়া আল্লাহ তাআলার নিকট সর্বাধিক পছন্দনীয়। (বাইহাকী শরীফ ১৮৭৩. মুসনাদে আহমদ ১৫৫৩৩)

উপরোক্ত আলোচনা থেকে স্পস্ট যে,কুরবানীর পশু কেমন হওয়া উচিৎ?

প্রশ্নকারী প্রিয় ভাই/বোন!

 জন্মগতভাবে এক অন্ডকোষ বিশিষ্ট পশু দিয়ে কুরবানী দেওয়াতে কোন সমস্যা নেই

والخصى افضل من الفحل لانه اطيب لحما

অর্থাৎ খাসী(অন্ডকোষহীন) পশু ফাহাল তথা অন্ডকোষবিশিষ্ট পশু থেকে উত্তম।কেননা তার গোস্ত সুস্বাদু হয়।

 (ফতওয়ায়ে হিন্দিয়া-৫/২৯৯)


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী মুজিবুর রহমান
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...