0 votes
8 views
in যাকাত ও সদকাহ (Zakat and Charity) by (4 points)
১. কোরআনে বর্ণিত জাকাতের ৮ টি খাতের যেকাউকে স্বাবলম্বী করার জন্য কি কিছু করে দিতে পারবো নাকি মূল টাকাটা তাকে দিয়ে মালিকানা করে দিব, যেন সে তার মতো ব্যবহার করতে পারে?

২. আমরা সংগঠনের মাধ্যমে জাকাত সংগ্রহ করসি!! বন্টন কি ইদের আগেই করে ফেলতে হবে আমাদের নাকি ইদের পর করলেও হবে? এক্ষেত্রে জাকাতের দাতা কি ৭০ গুন সওয়াব থেকে বঞ্চিত হবে?

1 Answer

0 votes
by (32.3k points)
বিসমিহি তা'আলা

জবাবঃ-

যাকাতের মাল দ্বারা খানা রান্না করে গরীব-মিসকিনকে খাওয়ানোও জায়েয আছে।(ফাতাওয়ায়ে দারুল উলূম-৬/১৪২)

কোনো গরীব-মিসকিনকে স্বাবলম্বী করার জন্য কিছু করে দেওয়াও জায়েয।

থানভী রাহ বলেন,যাকাতের ক্ষেত্রে কোনো বাধ্যবাধকতা না করে টাকা দ্বারা গরীবকে মালিক বানিয়ে দেয়াই উত্তম।(কিতাবুল ইলমে ওয়াল উলামা)

হ্যা যদি দেখা যায় যে,কাউকে টাকা দিলে সে অযথা টাকাকে নষ্ট করে ফেলবে,তাহলে এমতাবস্থায় টাকা না দিয়ে কিছু করে দেয়াই উত্তম।

তবে অবশ্যই তাকে উক্ত জিনিষের মালিক বানিয়ে দিতে হবে।

(2)

বৎসরের যেকোনো সময়ই যাকাত দেয়া যায়।তবে রমজান মাসকে যাকাত আদান-প্রদাণের মাস হিসেবে বেছে নেয়াই উত্তম।কেননা রমজান মাসে একটি আ'মলের সওয়াব অন্য মাসের তুলনায় অনেক বেশী।রমজান মাসের একটি আ'মলের ৭০বা ৭০০ বা তার চেয়ে বেশী করে সওয়াব আল্লাহ তা'আলা দেন।যেহেতু লোকজন রমজান মাসেই আপনাদের তহবিলে যাকাতের টাকা জমা দিচ্ছে,সুতরাং রমজানের ভিতরই সেটাকে কাজে লাগানো উচিৎ।

আল্লাহ-ই ভালো জানেন।

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার দ্বীন সম্পর্কীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য রয়েছে আমাদের  অভিজ্ঞ ওলামায়কেরাম ও মুফতি সাহেবগনের একটা টিম যারা ইনশাআল্লাহ প্রশ্ন করার ২৪-৪৮ ঘন্টার সময়ের মধ্যেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।

...