0 votes
42 views
in Faiths & Beliefs by
assalamu alaikum.

keu jodi gonotontrantik monobhaber hoy se jodi ai niyom ta ke e sharia law ar cheye bhalo mone kore se ki kafir hoye jabe?

1 Answer

0 votes
by (22.7k points)

বিসমিহি তা'আলা

জবাবঃ
ইসলামি সরকার ব্যবস্থার তিনটি পদ্ধতি শরীয়তে রয়েছে।যথা-

(১)আবু-বকর রাযি কে খলিফা নির্বাচন পদ্ধতি কে অনুসরণ করা।
জনসাধারণের রায়ের উপর আবু বকর রাযি খলিফা নির্বাচিত হয়েছিলেন।

(২)উমর রাযি কে খলিফা নির্বাচনের পদ্ধতি কে নির্বাচন করা।
পূর্ববর্তী খলিফা কর্তৃক নাম ঘোষণার মাধ্যমে উমর রাযি খলিফা নির্বাচিত হয়েছিলেন।
(৩)উসমান রাযি কে খলিফা নির্বাচন পদ্ধতি পদ্ধতিকে খলিফা নির্বাচন করা।
পূর্ববর্তী খলিফা কর্তৃক কয়েকজনের একটি ঘোষিত কমিটির নিকট খেলাফত হস্তান্তর।অতঃপর কমিটির সবার মতামতে  কাউকে খলিফা নির্বাচন।যেমন হযরত উসমান রাযি হয়েছিলেন।


এ তিন পদ্ধতির যে কোনো একটি পদ্ধতির দ্বারা খলিফা বা মুসলমানদের সরকার প্রদান নির্বাচন করা যায়।
কিন্তু পশ্চিমাদের চাপিয়ে দেয়া গণতন্ত্রে প্রথম পদ্ধতির সামান্য কিছু পাওয়া গেলেও সবটুকু পাওয়া যায়নি।
যেমন বর্তমান গণতন্ত্রে অধিকাংশের ভিত্তিতে পাশ-ফেইল নির্বাচন করা হয়।যেখানে একজন মুফতী,মাওলানা,প্রভাষক,র্রাষ্টবিজ্ঞানি এবং একজন পাগলের ভোটের মূল্য প্রায় সমান।
হক্ব না নাহক্ব তালাশ না করে শুধুমাত্র অধিকাংশের ভিত্তিতে কারো মতামতকে গ্রহণ করতে রাসূলুল্লাহ সাঃ কে অনুৎসাহিত করা হয়েছে।

যেমন আল্লাহ তা'আলা বলেন,
ﻭَﺇِﻥ ﺗُﻄِﻊْ ﺃَﻛْﺜَﺮَ ﻣَﻦ ﻓِﻲ ﺍﻷَﺭْﺽِ ﻳُﻀِﻠُّﻮﻙَ ﻋَﻦ ﺳَﺒِﻴﻞِ ﺍﻟﻠّﻪِ ﺇِﻥ ﻳَﺘَّﺒِﻌُﻮﻥَ ﺇِﻻَّ ﺍﻟﻈَّﻦَّ ﻭَﺇِﻥْ ﻫُﻢْ ﺇِﻻَّ ﻳَﺨْﺮُﺻُﻮﻥَ
আর যদি আপনি পৃথিবীর অধিকাংশ লোকের কথা মেনে নেন, তবে তারা আপনাকে আল্লাহর পথ থেকে বিপথগামী করে দেবে। তারা শুধু অলীক কল্পনার অনুসরণ করে এবং সম্পূর্ণ অনুমান ভিত্তিক কথাবার্তা বলে থাকে।
(সূরা আল-আন'আম-১১৬)

ইসলাম বুদ্ধিমানদের মতামতকে অনুসরণ করার পরামর্শ দেয়।
ﻗُﻞْ ﻫَﻞْ ﻳَﺴْﺘَﻮِﻱ ﺍﻟَّﺬِﻳﻦَ ﻳَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ ﻭَﺍﻟَّﺬِﻳﻦَ ﻟَﺎ ﻳَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ ﺇِﻧَّﻤَﺎ ﻳَﺘَﺬَﻛَّﺮُ ﺃُﻭْﻟُﻮﺍ ﺍﻟْﺄَﻟْﺒَﺎﺏِ
বলুন, যারা জানে এবং যারা জানে না; তারা কি সমান হতে পারে? চিন্তা-ভাবনা কেবল তারাই করে, যারা বুদ্ধিমান।

গণতন্ত্র কে ইসলামী ধাচে সাজানো যায়।কিন্তু বর্তমানে প্রচলিত পশ্চিমা গণতন্ত্র প্রায় অনেকটাই ইসলাম সাংঘর্ষিক।তবে কিছু বিষয় ইসলামের অনুকূলে রয়েছে।


যাই হোক।
এই পশ্চিমা গণতন্ত্রে প্রতিষ্টিত কোনো সরকার যদি সংসদে কোনো বিল পাশ করে,এবং তা কোরআন হাদীসের বিধি-বিধানের অনুকূলে থাকে তাহলো তো ভালো।এবং একে ভালো মনে করা দূষের কিছু নয়।

কিন্তু যদি সংসদ কুরআন-হাদীস বিরুধী কোনো বিল পাশ করে।এবং কেউ এ ব্যপারে এই ধারণা করে যে,সংসদের রায়-ই হক্ব বা যথাযোগ্য। তাহলে সে কাফের হয়ে যাবে।(নাউযু বিল্লাহ)
ফাতাওয়ায়ে উসমানি-৩/৫০৭


ইসলামি সরকার ব্যবস্থার পরিবর্তে গণতান্ত্রিক সরকার ব্যবস্থাকে ভালো মনে করা চরম পর্যায়ের  গুমরাহি ও পথভ্রষ্টতা।এবং ক্ষেত্রবিশেষ ঈমান হারা হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা থেকে যায়।

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন 356
অাল্লাহ-ই ভালো জানেন।

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার দ্বীন সম্পর্কীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য রয়েছে আমাদের  অভিজ্ঞ ওলামায়কেরাম ও মুফতি সাহেবগনের একটা টিম যারা ইনশাআল্লাহ প্রশ্ন করার ২৪-৪৮ ঘন্টার সময়ের মধ্যেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।

503 questions

499 answers

69 comments

329 users

11 Online Users
0 Member 11 Guest
Today Visits : 2879
Yesterday Visits : 6132
Total Visits : 912050

Related questions

...