0 votes
10 views
in Salah (Prayer) by (8 points)
সূরা ফাতেহা ৪১ দিন ৪১ বার করে প্রতিদিন  আমল করার নিয়ম ও এর ফজিলত সম্পর্কে বলার জন্যে অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।

1 Answer

0 votes
by (19.3k points)
বিসমিহি তা'আলা

জবাবঃ-
হযরত ইমরান ইবনে হুসাইন রাযি থেকে বর্ণিত

ﻭﻋﻦ ﻋﻤﺮﺍﻥ ﺑﻦ ﺣﺼﻴﻦ ﺃﻧﻪ ﻣﺮ ﻋﻠﻰ ﻗﺎﺹ ﻳﻘﺮﺃ ، ﺛﻢ ﻳﺴﺄﻝ ﻓﺎﺳﺘﺮﺟﻊ ، ﺛﻢ ﻗﺎﻝ : ﺳﻤﻌﺖ ﺭﺳﻮﻝ ﺍﻟﻠﻪ - ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ - ﻳﻘﻮﻝ : ( ﻣﻦ ﻗﺮﺃ ﺍﻟﻘﺮﺁﻥ ﻓﻠﻴﺴﺄﻝ ﺍﻟﻠﻪ ﺑﻪ ﻓﺈﻧﻪ ﺳﻴﺠﻲﺀ ﺃﻗﻮﺍﻡ ﻳﻘﺮﺀﻭﻥ ﺍﻟﻘﺮﺁﻥ ﻳﺴﺄﻟﻮﻥ ﺑﻪ ﺍﻟﻨﺎﺱ ) ﺭﻭﺍﻩ

ﺃﺣﻤﺪ ﻭﺍﻟﺘﺮﻣﺬﻱ
তিনি একবার এক বক্তার পাশ দিয়ে অতিক্রম করছিলেন,দেখলেন যে, সে কুরআন পড়ে পড়ে মানুষের নিকট থেকে সওয়াল করছে।

তখন তিনি বললেন, ইন্নালিল্লাহ......... ।

আমি রাসূলুল্লাহ সাঃ কে বলতে শুনেছি যে,তিনি বলেছেন,যে ব্যক্তি কুরআন পড়বে সে যেন আল্লাহর নিকট এই কুরআন দ্বারা কিছু চায়।অচিরেই কিছু এমন লোকের আত্মপ্রকাশ ঘটবে,যারা কুরআন পড়বে ঠিকই কিন্তু এর দ্বারা তারা লোকদের নিকট সুওয়াল করবে।

মিরকাতুল-মাফাতিহ-২২১৬।

কুরআন পড়ে আল্লাহর নিকট দু'আ করা যায়। এবং দু'আ কবুল ও হয়।কিন্ত বিশেষ কোনো সংখ্যাকে কুরআনের কোনো অংশের সাথে দলীল-প্রমাণ ছাড়া নির্দিষ্ট করে দেয়া কখনো জায়েয হবে না।

সূরায়ে ফাতেহাকে ৪১ বার ৪১দিন পড়ার কোনো ত্বরিকা বা নিয়ম কুরআন-হাদীসের কোথাও আসেনি।তাই একে কুরআন-হাদীস দ্বারা প্রমাণিত কোনো আ'মল মনে করা ঠিক হবে না।

তবে অনেক সালাফ তথা পূর্ববর্তী নেককারগণ এ ব্যাপারে তাদের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে বলেন,যে কোনো সূরা বিশেষকরে সুরায়ে ফাতাহাকে ৪১দিন ৪১বার করে পড়লে দু'আ কবুল হয়।বিভিন্ন রোগের চিকিৎসার জন্য তদবির করলে ফল পাওয়া যায়।

তথা সকল প্রকার চিকিৎসার মূল উৎস হিসেবে সেটা কাজ করে।

যেহেতু রাসূলুল্লাহ সাঃ কুরআন দ্বারা আল্লাহর নিকট সুওয়াল করতে বলেছেন,তাই আল্লাহ সামনে নযরানা পেশ করা হিসেবে এমনটা করা যেতে পারে।এক্ষেত্রে ৪১কে মানদন্ড মনে করা উচিৎ হবে না।বরং অনায়াসে কমবেশ করা যাবে।

আল্লাহ-ই ভালো জানেন।

পরামর্শ  প্রদাণে

মুফতী ইমদাদুল হক

ইফতা বিভাগ, Iom.

পরিচালক

ইসলামিক রিচার্স কাউন্সিল বাংলাদেশ

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার দ্বীন সম্পর্কীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য রয়েছে আমাদের  অভিজ্ঞ ওলামায়কেরাম ও মুফতি সাহেবগনের একটা টিম যারা ইনশাআল্লাহ প্রশ্ন করার ২৪-৪৮ ঘন্টার সময়ের মধ্যেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।

441 questions

431 answers

56 comments

282 users

16 Online Users
0 Member 16 Guest
Today Visits : 717
Yesterday Visits : 5963
Total Visits : 653020
...