0 votes
20 views
in miscellaneous Fiqh by (4 points)

আমায় একজন বলেছে- "সব মাদরাসায় ইয়াতিম অথবা দরিদ্রদের জন্য জাকাতের ফান্ড আছে... আর ঐসব টাকা প্লাস স্টুডেন্টদের বেতন সব একসাথেই জমা হয় ঐখান থেকেই টিচারদের বেতন দেয়া হয়... এন্ড সেই টাকায় করা বাজার করেই নরমাল এন্ড দরিদ্রদেরকে খাবার দেয়া হয়... সুতরাং এই টাকায় জাকাতের টাকা মিক্স যেটা একজন অবস্থাসম্পন্নের জন্য হারাম!!" 

শায়খ, মাদারিসে কাউমিয়ার উস্তাযদের বেতন পদ্ধতি এমন হলো যাতে সরকারের রাজস্বের হারাম অর্থ এখানে প্রবেশ করতে না পারে! অথচ অনেক উস্তাযের জন্যই যাকাতের টাকা বেতন হিসেবে নেয়া জায়েজ হয়না! এর উত্তর কি দিব শায়খ?

1 Answer

0 votes
by (14.3k points)
বিসমিহি তা'আলা

সমাধানঃ-

জ্বী, উনার মাস'আলা বর্ণনা সঠিক।

তবে উনার এ কথা যে, বাংলাদেশের কওমী মাদরাসা সমূহে যাকাত-ফিতরা কুরানির এবং চামড়ার টাকা দিয়ে উস্তাদের বেতন ভাতা দেওয়া হয়,সেটা সত্য নয়।

আমি অনেক মাদরাসাকে দেখেছি, যেখানে জেনারেল ফান্ড তথা সাধারণ ডোনেশন এর টাকা দিয়ে-ই উস্তাদদের বেতন-ভাতা দেয়া হয়।

এবং  যাকাত-ফিতরা দিয়ে শুধুমাত্র গরীব-এতিম ছাত্রদের খোরাকির ব্যবস্থা করা হয়।

তবে যদি কোথাও উনার বর্ণনামত পরিস্থিত বা পরিচালনা পদ্ধতি পাওয়া যায়,তবে সংশোধন-ই কাম্য।নয়তো এর জবাবদিহি মাদরাসা প্রধানকে করতে হবে।

বিস্তারিত জানতে নিম্নক্ত কিতাবাদি দেখা যেতে পারে,

আল-ইলমু ওয়াল উলামা-(হাকীমূল উম্মত থানভী রাহ,)

আহসানুল ফাতাওয়া-(১ম খন্ড-মুকাদ্দিমা)

আল্লাহ-ই ভালো জানেন।

উত্তর লিখনে

মুফতী ইমদাদুল হক

ইফতা বিভাগ, IOM.

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার দ্বীন সম্পর্কীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য রয়েছে আমাদের  অভিজ্ঞ ওলামায়কেরাম ও মুফতি সাহেবগনের একটা টিম যারা ইনশাআল্লাহ প্রশ্ন করার ২৪-৪৮ ঘন্টার সময়ের মধ্যেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।

354 questions

332 answers

36 comments

224 users

15 Online Users
0 Member 15 Guest
Today Visits : 369
Yesterday Visits : 5511
Total Visits : 315782

Related questions

...