0 votes
335 views
in হালাল ও হারাম (Halal & Haram) by (39 points)
আস সালামু আলাইকুম, ইউটিউব এর মনিটাইজেশন এর মাধ্যমে আয় করা টাকা কি হালাল? এই টাকার মাধ্যমে যদি ইউটিউব এর ব্যবহারের জন্যে কোন জিনিস কেনা হয় সেটা কি হালাল হবে এবং কেনা মাইক-মিক্সারের মাধ্যমে ইউটিউবে দেয়া কোন ভালো ইসলামিক ভিডিও(সওয়াবের আশায়) কি নাজায়েজ হয়ে যাবে?
by (22 points)
আমার জানা মতে হারাম। আপনি এই ভিডিও টা দেখতে পারেন, https://www.youtube.com/watch?v=ppKCVwaVXXg

1 Answer

0 votes
by (37.6k points)
edited by

সমাধানঃ-

ছবি-ভিডিও সম্পর্কে উলামায়ে কেরামদের মধ্যে বিরোধপূর্ণ মতামত পাওয়া যায়।

(ক)

আরব বিশ্বের উল্লেখসংখ্যক কিছু উলামায়ে কেরাম এবং দেওবন্দ মতাদর্শের কিছু বিজ্ঞজনের মতে ছবি-ভিডিও প্রায় জায়েয।তারা মনে করেন, সেটা হাদীসে নিষিদ্ধ তাসবীরের অন্তর্ভুক্ত নয়।

(খ)

অন্যদিকে দক্ষিণ এশিয়ার অধিকাংশ উলামায়ে কেরামসহ আরব বিশ্বের কিছু উলামায়ে কেরাম ছবি-ভিডিও- এর হুকুম-কে এখনও হাদীসে নিষিদ্ধ তাসবীবের অন্তর্ভুক্ত মনে করেন।এবং বর্তমান সময়েও ছবি-ভিডিও কে জরুরত ব্যতীত হারাম ফাতাওয়া প্রদাণ করেন।

এদের মধ্যে আবার কিছুসংখ্যক উলামায়ে কেরাম জরুরতের ভিত্তিতে ছবি-ভিডিওর বৈধতার ক্ষেত্রকে সীমিত করে শুধুমাত্র পাসপোর্ট, চাকুরী, ইত্যাদির জন্য সীমাবদ্ধ করে দেন। অন্যদিকে কিছু সংখ্যক উলামায়ে কেরাম জরুরতের ভিত্তিতে বৈধতার ক্ষেত্রকে পাসপোর্ট, চাকুরী ব্যতীতও ওয়াজ মাহফিল, সহ যাবতীয় বৈধ ও নেক কাজের ক্ষেত্রে বৈধ বলে মনে করেন।

সুপ্রিয় পাঠকবর্গ!

শরীয়তের জটিল এবং কঠিন মাসআলা সমূহের মধ্যে ইহা অত্যন্ত জটিল একটি মাস'আলা।

তাই এক্ষেত্রে আমাদেরকে 'সন্দেহপূর্ণ জিনিষ থেকে বেঁছে থাকার  কথা যে হাদীসে বর্ণিত হয়েছে' সেদিকে মনযোগ দিয়ে নিজের জন্য সিদ্ধান্ত নিতে হবে।এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন-669

আল্লাহ-ই ভালো জানেন।

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার দ্বীন সম্পর্কীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য রয়েছে আমাদের  অভিজ্ঞ ওলামায়কেরাম ও মুফতি সাহেবগনের একটা টিম যারা ইনশাআল্লাহ প্রশ্ন করার ২৪-৪৮ ঘন্টার সময়ের মধ্যেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।

Related questions

...