0 votes
14 views
in Halal & Haram by
আমরা জানি, উটের কুঁজের মতো উঁচু করে কেশ বিন্যাসকারিনী জাহান্নামী।

আমার প্রশ্ন হলো, মেয়েরা গোসলের পর গামছা/তোওয়ালে ব্যবহার করে যখন ভেজা চুল পেঁচিয়ে রাখে, কোন কোন সময় তা উঁচু দেখায়। হাদিসের ভাষ্যমতে তারাও কি উটের ন্যায় কেশ বিন্যাসকারিনী হিসেবে গন্য হবে?

ভেজা চুল ঘাড়ের উপর গামছা/তোওয়ালে দিয়ে পেঁচিয়ে নিয়ে নামাজে দাঁড়ালে, হিজাবের উপর দিয়ে সেটাও একটু উঁচু দেখায়। এভাবে কি নামাজ ফাসেদ হয়ে যেতে পারে?

জানিয়ে উপকৃত করবেন। জাযাকাল্লাহ খইরন।

1 Answer

0 votes
by (7k points)
বিসমিহি তা'আলা

জবাবঃ-

আপনি যে হাদীসের কথা বলছেন।সেই হাদীসের আরবী ইবারত(ভার্সন)নিম্নরূপ--

হযরত আবূ হুরায়রা রাযি, কর্তৃক বর্ণিত, রাসূল সা. বলেছেন,

ﻋﻦ ﺃﺑﻲ ﻫﺮﻳﺮﺓ ﻗﺎﻝ ﻗﺎﻝ ﺭﺳﻮﻝ ﺍﻟﻠﻪ ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭﺳﻠﻢ

ﺻﻨﻔﺎﻥ ﻣﻦ ﺃﻫﻞ ﺍﻟﻨﺎﺭ ﻟﻢ ﺃﺭﻫﻤﺎ ﺑﻌﺪ : ﺭﺟﺎﻝ ﻣﻌﻬﻢ ﺳﻴﺎﻁ ﻛﺄﺫﻧﺎﺏ ﺍﻟﺒﻘﺮ ﻳﻀﺮﺑﻮﻥ ﺑﻬﺎ ﺍﻟﻨﺎﺱ ، ﻭﻧﺴﺎﺀ ﻛﺎﺳﻴﺎﺕ ﻋﺎﺭﻳﺎﺕ ﻣﺎﺋﻼﺕ ﻣﻤﻴﻼﺕ ﻋﻠﻰ ﺭﺅﻭﺳﻬﻦ ﻛﺄﺳﻨﻤﺔ ﺍﻟﺒﺨﺖ ﺍﻟﻤﺎﺋﻠﺔ ، ﻻ ﻳﺪﺧﻠﻦ ﺍﻟﺠﻨﺔ ﻭﻻ ﻳﺠﺪ ﺭﻳﺤﻬﺎ ، ﻭﺇﻥ ﺭﻳﺤﻬﺎ ﻟﻴﻮﺟﺪ ﻣﻦ ﻣﺴﻴﺮﺓ ﻛﺬﺍ ﻭﻛﺬﺍ
”জাহান্নামবাসীর দুটি দল থাকবে। যাদেরকে এখন পর্যন্ত আমি দেখিনি। একদল এমন লোক যাদের হাতে গরুর লেজের মত লাঠি থাকবে যা দিয়ে তারা লোকদেরকে প্রহার করবে।(ন্যায়-অন্যায়ের ধার ধারবে না)

“আর অন্য দল এমন নারী যারা পোশাক পরেও উলঙ্গ থাকে।তারা অন্যদেরকে নিজেদের প্রতি আকৃষ্ট করবে এবং নিজেরাও অন্যদের প্রতি ঝুঁকবে। তাদের মস্তক উটের পিঠের কুঁজের মত হবে। তারা জান্নাতে প্রবেশ করবে না। এমনকি জান্নাতের ঘ্রাণও তারা পাবে না। অথচ এর ঘ্রাণ এত এত দূর থেকেও পাওয়া যায়।”
[সহীহ মুসলিম : ২১২৮]

উক্ত ঙহাদীসের ব্যাখ্যায় ইমাম নববী রাহ,লিখেন,

 ومعنى رؤوسهن كَأَسْنِمَةِ الْبُخْتِ أَنْ يُكَبِّرْنَهَا وَيُعَظِّمْنَهَا بِلَفِّ عِمَامَةٍ أو عصابة أونحوها

উটের পিঠের কুঁজের মত মস্তক হওয়ার অর্থ হল,তারা পাগড়ী বা এ জাতীয় কিছু বেঁধে মাথাকে উচু ও বড় করবে।

[আল-মিনহাজ্ব14/110]

তাফসীরে রুহুল মা'আনীতে বর্ণিত রয়েছে,

رؤوسهن كَأَسْنِمَةِ الْبُخْت يعنى يعظمن رؤسهن بالخمر والقلنسوة حتى تشبه اسمة البخت ،

روح المعانى ٢/٣٤

وفي موضع اخر او معناه ينظرن الى الرجال برفع رؤسهن (المائلة)لان اعلى السنام يميل لكثرة شحمه

روح المعاني ٦/١٠٥

চাদর বা টুপির দ্বারা তারা তাদের মাথাকে উচু ও বড় করবে,যা শেষ পর্যন্ত উটের পিঠের কুঁজের ন্যায় ধারণ করবে।(রুহুল মা'আনী;২/৩৪)

উক্ত কিতাবের অন্যত্র বর্ণিত রয়েছে,

অথবা এর অর্থ হল,

"যারা উটের পিঠের কুঁজের মত মাথা উচু করে পুরুষের দিকে তাকাবে।"যা পুরুষকে নিজের দিকে আকৃষ্ট করতে সাহায্য করে।কেননা কুঁজ চর্বিসম্পন্ন হওয়ার কারণে তার দিকে সহজেই লোকজন আকৃষ্ট হয়।রুহুল মা'আনী;৬/১০৫

সু-প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!

দ্বীন-ইসলাম সম্পর্কে জানা ও মানার আগ্রহ দেখে এবং i.o.m এর প্রতি আশ্বস্ত দেখে আমি যারপরনাই আনন্দিত।আল্লাহ পাক আপনাদেরকে দ্বীনের উপর সর্বদা অঠল-অবিচল রাখুন।সেই কামনা ও প্রত্যাশা।

সারকথা উক্ত হাদীসে ঘরের বাহিরে এমন পোষাক পরিধান করে বের হওয়া থেকে নিষেধ করা হয়েছে।এমন পোষাক যা সতরকে ঢাকেনি বা উটের পিঠের মত কুঁজু করে চুল বাধাই ইত্যাদি সব যৌনকামনাকে প্রবুদ্ধ করে থাকে।সে জন্য একে নিষেধ করা হয়েছে।

তবে বিশেষ প্রয়োজনে চুলকে কুঁজু করে বাধা যাবে।এবং এমন করে বাঁধলে নামাযে কোনো ব্যঘাত ঘটবে না।

জাযাকুমুল্লাহ।

আল্লাহ-ই ভালো জানেন।

উত্তর লিখনে

মুফতী ইমদাদুল হক

ইফতা বিভাগ, IOM.

পরিচালক

ইসলামিক রিচার্স কাউন্সিল বাংলাদেশ
ইসলামিক ফতোয়া ওয়েবসাইটটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত। যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার দ্বীন সম্পর্কীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য রয়েছে আমাদের অভিজ্ঞ ওলামায়কেরাম ও মুফতি সাহেবগনের একটা টিম যারা ইনশাআল্লাহ প্রশ্ন করার ২৪-৪৮ ঘন্টার সময়ের মধ্যেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।

Related questions

...