0 votes
23 views
in বিবিধ মাস’আলা (Miscellaneous Fiqh) by (11 points)
আমার বাসায় কিছু ঝামেলার জন্য অল্প কয়েকটি মাসের জন্য আমার হোস্টেলে থাকা দরকার। কিন্তু থাকতে হলে এলটমেন্ট নিতে হবে, যার জন্য এককালীন ২৭ হাজার টাকা দিতে হবে, এছাড়া প্রতি মাসের ভাড়া তো আছেই। কিন্তু এতো টাকা এককালীন দিতে মাত্র ৩/৪ মাসের জন্য উঠা আমার জন্য সম্ভব না। তাই আমি মেয়েদের কাছ থেকে ভাড়া নিতে চাচ্ছি। অনেকেই আছে যাদের এলটমেন্ট আছে, কিন্তু থাকে না তাদের কাছে থেকে। কিন্তু এ ব্যাপার টা কতৃপক্ষকে জানানো যাবে না। এখন এ ব্যাপারটা কতটুকু জায়েজ হবে?

1 Answer

0 votes
by (16,560 points)
edited by

 

بسم الله الرحمن الرحيم

জবাব,

 

হাদীস শরীফে এসেছেঃ

 

عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ، قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «مَنْ غَشَّنَا فَلَيْسَ مِنَّا»

 

হযরত আবু হুরায়রা রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসূল সাঃ ইরশাদ করেছেনঃ যে ধোঁকা দেয়, সে আমার উম্মতের অন্তর্ভূক্ত নয়। {মুসান্নাফ ইবনে আবী শাইবা, হাদীস নং-২৩১৪৭, সহীহ মুসলিম, হাদীস নং-১৬৪, সুনানে দারেমী, হাদীস নং-২৫৮৩, সুনানে ইবনে মাজাহ, হাদীস নং-২২২৫, সহীহ ইবনে হিব্বান, হাদীস নং-৪৯০৫}

হাদীস শরীফে এসেছেঃ

 

قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: الْمُسْلِمُونَ عَلَى شُرُوطِهِمْ

 

হযরত আবূ হুরায়রা রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসূল সাঃ ইরশাদ করেছেনঃ মুসলমানগণ তার শর্তের উপর থাকবে। {সুনানে আবু দাউদ, হাদীস নং-৩৫৯৪, সুনানে দারা কুতনী, হাদীস নং-২৮৯০, শুয়াবুল ঈমান, হাদীস নং-৪০৩৯}

 

সু-প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!

প্রশ্নেল্লিখিত ছুরতে যদি হোস্টেল সুপারের পক্ষ থেকে নিষেধ থাকে যে, এলটমেন্ট গ্রহণ করা ছাড়া কেউ হোস্টেলে থাকতে পারবে না তাহলে কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে কোন ছাত্রীকে টাকা দিয়ে ঐ হোস্টেলে অবস্থান করা জায়েয হবে না। তবে যদি অনুমতি থাকে,বা কোনো নিষেধাজ্ঞা না থাকে,তাহলে প্রশ্নে উল্লেখিত আপনার জন্য উক্ত পদ্ধতিতে সেখানে অবস্থান করা জায়েজ হবে।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী মুজিবুর রহমান
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...