0 votes
15 views
in পবিত্রতা (Purity) by (6 points)
আসসালামু আলাইকুম

একদিন বাদামী স্রাব বের হয়ে পরবর্তীতে আর কিছু নির্গত হয়নি।তবে আমি পরেরদিন সালাত আদায় করিনি এই ভেবে যে এখন ও হায়েজের সময় চলছে।এক্ষেত্রে আমার কী সালাত আদায় শুরু করা উচিত?নাকি অপেক্ষা করা উচিত?

1 Answer

0 votes
by (226,240 points)
ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। 
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
https://www.ifatwa.info/78 নং ফাতাওয়ায় আমরা বলেছি যে,
হায়েযের সর্বোচ্ছ সময়সীমা ১০দিন।এ ১০দিনের ভিতর লাল,হলুদ,সবুজ,লাল মিশ্রিত কালো বা নিখুত কালো যে কালারের-ই পানি বের হোক না কেন তা হায়েয হিসেবেই গণ্য হবে।যতক্ষণ না নেপকিন সাদা নজরে আসবে।(বেহেশতী জেওর-১/২০৬) তথা সাদা রং ব্যতীত সকলপ্রকার রং ই হায়েযের অন্তর্ভুক্ত।

কারো যদি নিয়ম থাকে যে, মাসে চার বা পাঁচ দিন হায়েয আসে। এই চার বা পাঁচ দিন অতিবাহিত হয়ে যে নামাযের ওয়াক্তে রক্ত বন্ধ হবে, সে নামাযের আখের ওয়াক্তে গোসল করে উক্ত নামায পড়বে।অতঃপর আবার হায়েয দেখা দিলে নামায ছেড়ে দিবে।(আহসানুল ফাতাওয়া;২/৬৮) আল্লাহ-ই ভালো জানেন।

সু-প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই/বোন!
https://www.ifatwa.info/1524 নং ফাতাওয়ায় আমরা বলেছি যে, 
হায়েয সর্বনিম্ন তিন দিন হয়।তিনদিনের কম যদি কখনো রক্ত আসে তাহলে সেটাকে ইস্তাহাযা হিসেবে গণ্য করা হবে। (কিতাবুল ফাতাওয়া-২/৯৭)
সুতরাং আপনি এটাকে ইস্তেহাযা গণ্য করে সে অনুযায়ী ইবাদত করবেন। 


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

Related questions

...