0 votes
65 views
in Halal & Haram by
আসসালামু আলাইকুম  ওয়া রহমাতুল্লাহিওয়াবারাকাতা।  আমরা অনেক সময় মাসিক ইন্সটলম্যান্ট এ জিনিস কিনি। যেমন ফ্রিজ, এসি, মোটরসাইকেল ইত্যা।।  সেইক্ষেত্রে একবারে টাকা দিলে যেই পরিমাণ দেয়া লাগতো মাসিক ইন্সটলম্যান্ট এ দিলে মূল টাকার চেয়ে কিছু বেশি রাখে। এইটা কি সুদ হবে?

1 Answer

0 votes
by (12.2k points)
সমাধানঃ- 

কিস্তিতে অতিরিক্ত মূল্যে পন্য ক্রয় জায়েয আছে।সুদ হবে না।তবে শর্ত হল যে, দেড়ীতে মালের মূল্য পরিশোধ করার দরুণ প্রথমেই  একটি মূল্য নির্ধারণ করে নিতে হবে।

যেমন -একটি ফ্রিজ, নগদ হলে চল্লিশ হাজার টাকা।আর ১২মাসের কিস্তিতে হলে পঞ্চাশ হাজার টাকা।

এভাবে লেনদেনের পূর্বেই দুটি মূল্য ঠিক করে নিতে হবে।পরবর্তীতে আবার অতিরিক্ত মূল্য চার্জ করা যাবে না।কিস্তি মিস হলে অতিরিক্ত চার্জ করা সুদের অন্তর্ভুক্ত হবে।

কিতাবুল ফাতাওয়া-৫/১৯৯--৫/২২৪

আল্লাহ-ই ভালো জানেন।

মুফতী ইমদাদুল হক

সিলেট বাংলাদেশ।

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার দ্বীন সম্পর্কীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য রয়েছে আমাদের  অভিজ্ঞ ওলামায়কেরাম ও মুফতি সাহেবগনের একটা টিম যারা ইনশাআল্লাহ প্রশ্ন করার ২৪-৪৮ ঘন্টার সময়ের মধ্যেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।

294 questions

290 answers

24 comments

188 users

16 Online Users
1 Member 15 Guest
Online Members
Today Visits : 1812
Yesterday Visits : 7009
Total Visits : 134926

Related questions

...