0 votes
54 views
in Family Life,Marriage & Divorce by
আস্সালামুআলাইকুম।

#তালাক

শায়খ দয়া করে আমাকে উত্তর /পরামর্শ দিয়ে
সাহায্য করবেন।কয়েকবার আহলে হক মিডিয়া ওয়েবসাইটে লিখেও কোন উত্তর পাইনি তাই এখানে লিখা। বিরক্ত করার জন্য ক্ষমা চাচ্ছি।

আমার তিন বছর আগে এক রাতে আমার স্বামীর সাথে কথকাটাকাটির এক পর্যায়ে আমাকে বলে “তোমাকে ত্যাগ করলাম” ।একবার কি দুবার বলেছে যদিও আমার সঠিক মনে নেই তবে একবার শুনেছি এটা মনে আছে। এরপর কিছুক্ষন পরই সব ঠি ক হয়ে যায় এবং আমরা একসাথে থাকি। আমার স্বামী বলেছে ও নাকি মন থেকে বলে নাই আমাকে ভয় দেখানোর জন্য বলেছে,আর বলার আগে নাকি অাল্লাহ তাআলাকে বলেছে আমার নিয়ত নাই ওঁকে ত্যাগ করার। যাইহোক কিছুদিন পর ওঁকে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে বলে ও নাকি কয়েকজন মুফতীর সাথে এই বিষয়টা নিয়ে আলোচনা করেছেন উনারা বলেছেন নাকি তালাক হয়নি। (ওহ আমার স্বামী তাবলীগি) । আমি আগে তালাক সম্বন্ধে এত জানতামনা । দ্বীনের বুঝ আসার পর দেড় বছর আগে থেকে এটা নিয়ে খুব পেরেশান আছি কোন মুফতীর কাছে সরাসরি জানব সে সুযোগ ও নেই ।আমার স্বামীকে এটা নিয়ে জিজ্ঞাসা করলে বারবার ও মারাত্মক রেগে যায় বলে আমি নাকি না থাকার জন্য এসব বাহানা খুঁজছি। আসলে যদি হারাম সম্পর্কে থাকি সেই ভয়ে আমার স্বাভাবিক জীবন ব্যাহত হচ্ছে।নামাজ কালামে ও মনোযোগ দিতে পারছিনা। দয়াকরে আমাকে সাহায্য করবেন। আমি শুধু আপনার কাছ থেকে সঠিক মাসআলাটা জেনে স্বাভাবিক জীবন কাটাতে চাই।

জাযাকাল্লাহু খায়র

1 Answer

0 votes
by (1.3k points)
ওয়া আলাইকুম ওয়াসসালাম,

বিষয়টি যেহুতু স্পর্শকাতর এবং তালাক প্রসঙ্গ; সুতরাং আশা করি সঠিক এবং স্বচ্ছ কিছু ইনফরফেশন দিয়ে আমাদেরকে  সহযোগীতা করবেন।

১, প্রশ্নেল্লিখিত  ‘কথাকাটি’ বলতে কী ঝগড়া বা এই টাইপের কিছু বুঝানো হয়েছে? সেই সময়কার পরিস্থিতি নিয়ে একটু ক্লিয়ার করবেন, বিষয়টি যেহুতু সিক্রেট সো, প্রয়োজনে প্রাইভেটলিভাবে আমাদের সাথে ফোন বা ইমেইলে জানাতে পারেন, *Emails are not allowed*

2. আপনার স্বামীর মূখ থেকে নির্গত হুবহু বাক্য বা শব্দ’ কনফার্ম করবেন।

বি.দ্র. এতে পেরেশানি হওয়ার দরকার  নেই , আপনি স্বাভাবিক থাকুন, ইনশাল্লাহ বড় কোন অঘটন ঘটেনি, এটা নিশ্চিত. তথাপি ফাতওয়ার আলোকে আমাদের বিস্তারিত জানা প্রয়োজন। জাযাকাল্লাহ
ইসলামিক ফতোয়া ওয়েবসাইটটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত। যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার দ্বীন সম্পর্কীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য রয়েছে আমাদের অভিজ্ঞ ওলামায়কেরাম ও মুফতি সাহেবগনের একটা টিম যারা ইনশাআল্লাহ প্রশ্ন করার ২৪-৪৮ ঘন্টার সময়ের মধ্যেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।
...